সোনার গয়নায় কিউআর কোড চালুর প্রতিবাদে প্রতীকী ধর্মঘট রাজ্যের ক্ষুদ্র স্বর্ণ ব্যবসায়ীদে

0
391

শান্তনু পান, পশ্চিম মেদিনীপুর:- সোনার গহনার ওপর হলমার্কের পাশাপাশি এবার কিউআর (QR) কোড চালু করতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। আর তাতেই সমস্যায় পড়তে চলেছে দেশের ক্ষুদ্র, মাঝারি সোনার ব্যবসায়ী ও স্বর্ণ শিল্পীরা। তাই কেন্দ্রীয় সরকারের সোনার গহনায় কিউআর (QR) কোড চালুর প্রতিবাদে সোমবার ভারত জুড়ে প্রতীকী ধর্মঘটের ডাক দিয়েছিল ছোট ও মাঝারি মাপের স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা।

মূলত ২২ক্যারেট থেকে ২৪ ক্যারেট সোনার গয়নায় হলমার্ক থাকে । আর এই হলমার্ক নির্ধারণ করে সরকারী লাইসেন্স প্রাপ্ত এলাকার হলমার্ক সেন্টার। কিন্তু সম্প্রতি কেন্দ্র সরকার যে নতুন নির্দেশিকা জারি করেছে, সেই নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, এই সোনার জিনিসপত্রে হলমার্কের পাশাপাশি থাকবে কিউআর (QR) কোড, যে কোডের দ্বারা অনলাইনে ওই গহনার সমস্ত তথ্য পাওয়া যাবে। যাতে করে ক্রেতারা প্রতারণার শিকার না হন। পাশাপাশি ওই সোনার গহনার তথ্য নির্দিষ্টভাবে সরকারি দপ্তরেও জমা করতে হবে। ফলে ওই গহনা কোন দিনে কার কাছে বিক্রি হয়েছে বা কার কাছে কত সোনা মজুদ রয়েছে সেটাও জানা যাবে। এই গোটা পদ্ধতিটিকেই বলা হচ্ছে HUID বা hallmarking unique identification system ।

এদিকে এই নির্দেশিকা জারি হতেই সমস্যায় পড়েছেন সোনার কারিগর থেকে ছোট ও মাঝারি মাপের স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা। ব্যবসায়ীদের মতে এই নির্দেশিকা মানতে গেলে অর্থাৎ গয়নার সমস্ত তথ্য অনলাইনে আপলোড করে সরকারি দপ্তরে জমা করে একটা সোনার জিনিস বিক্রি করতে কমপক্ষে ১৫ দিন লাগবে।যার ফলে ব্যবসার ক্ষেত্রে যেমন সমস্যা হবে তেমনি একটা জিনিস বিক্রি করতে সমস্যায় পড়বেন তারা। এর পাশাপাশি রয়েছে আরও নানাবিধ সমস্যা। সেসব সমস্যা সমাধানের দাবিতেই সোমবার প্রতীকি ধর্মঘটে সামিল হয়েছিল পশ্চিম মেদিনীপুর সহ সারা রাজ্যের ছোট স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা। এ রাজ্যের সঙ্গে জঙ্গলমহল পশ্চিম মেদিনীপুরেও সোনার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা বিরাট সংখ্যায় রয়েছেন। যারা এই ছোট বড় কাজ করে নিজের সংসার চালিয়ে আসছেন।

প্রসঙ্গক্রমে বলা যায়, চাকরি না পেয়ে মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক পাশ ছেলেরা হাতে গড়া সোনার গহনা তৈরী করে নিজেদের জীবন জীবিকা নির্বাহ করছে। তবে ছোট থেকে হাতে কাজ শিখে তারা সোনার কারিগর তৈরি হয়েছে। সোনার দোকানিরা ছোট বড় কাজ করে দিনাতিপাত করছিলেন এতদিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here