সরকারি টাকা নয়ছয়ের অভিযোগ লাউদোহায়

0
818

সোমনাথ মুখার্জী, লাউদোহা – ২০১৫-১৬ অর্থবছরে দুর্গাপুর ফরিদপুর ব্লক এর লাউদোহা পঞ্চায়েতের অন্তর্গত ঝাঁজরা গ্রাম এলাকায় কুড়ি লক্ষ টাকা ব্যয়ে ঘটা করে  তৈরি হয়েছিল কঠিন তরল বর্জ্য নিষ্কাশন কেন্দ্র । সরকারের উদ্যোগ ছিল ,এইরকম কঠিন তরল বর্জ্য নিষ্কাশন কেন্দ্র ব্লকে ব্লকে তৈরি করে এলাকার বর্জ্য পদার্থ সংগ্রহ করে তা থেকে জৈব সার উৎপাদন করা । এর ফলে এলাকা যেমন পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকবে অন্যদিকে  জৈব সার উৎপাদন করে কিছু স্বনির্ভর গোষ্ঠী তাদের উপার্জন করতে পারবে । কিন্তু ঘটা করে তৎকালীন জেলা শাসক সৌমিত্র মোহন মহাশয়ের উপস্থিতিতে উদ্বোধন করা হয়  লাউ দোহা পঞ্চায়েতের এর অন্তর্গত ঝাজরা এলাকায় বর্জ্য নিষ্কাশন কেন্দ্রটি । কুড়ি লক্ষ টাকা ব্যয়ে নামমাত্র উদ্বোধন হয় এই কেন্দ্রটি। উদ্বোধন হওয়ার পরও  আজও কাজ শুরু হয়নি এই কেন্দ্রের । এই কেন্দ্রটি এখন জঙ্গলে পরিপূর্ণ। কেন্দ্রের ঘর গুলোতে চলছে অসামাজিক কাজকর্ম এমনটাই মত এলাকার বাসিন্দাদের ।  গ্রামের প্রবীণ বাসিন্দা বিশ্বনাথ পাল অভিযোগ করেন, যে জন্য এই কেন্দ্রটি তৈরি হয়েছিল তা তো হয়নি এককথায় সরকারি টাকার অপচয় হয়েছে । কেন্দ্রের দের ঘর গুলিতে অসামাজিক কাজকর্ম চলছে দিনে দুপুরে ।  বিশ্বনাথ বাবুর অভিযোগ এক শ্রেণীর ঠিকাদারদের পয়সা পাইয়ে দিতেই শাসক দলের নেতারা এই কাজগুলি করেছেন ।তারা চান অবিলম্বে এই কেন্দ্রটির কাজ শুরু হোক এলাকার মানুষ এর ফলে উপকৃত হোক । এ বিষয়ে দুর্গাপুর ফরিদপুর ব্লকের সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক মৃণালকান্তি বাগচী  জানান এ বিষয়ে খোঁজখবর নিয়েছেন ।এবং কেন এই কেন্দ্রটি বন্ধ হয়ে পড়ে রয়েছে দেখবেন । যাতে খুব শীঘ্রই  কেন্দ্রটি চালু করা যায় তার ব্যবস্থার আশ্বাস দেন ।লাউদোহা পঞ্চায়েত প্রধান পিনাকী ব্যানার্জি এই কেন্দ্রটির কাজ শীঘ্রই চালু করার আশ্বাস দেন । এখন দেখার বিষয় প্রশাসনের আশ্বাস কতটা বাস্তবে রূপায়িত হয় ? কবে থেকে শুরু হয় এই বর্জ্য নিষ্কাশন কেন্দ্রটি কাজ ? তারই অপেক্ষায় দিন গুনছেন  এলাকার মানুষ ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here