১৮ই অগাস্টই কি নেতাজি-র মৃত্যু দিন! আবেগে আঘাত হেনেই মুক্তি পেল গুমনামী-র পোস্টার

0
459

বিনোদন ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ সম্প্রতিই প্রকাশ্যে এসেছে সৃজিত মুখোরপাধ্যায়ের পরবর্তী ছবির খবর। ছবির নাম গুমনামী। একাধিক বিতর্কেও জড়িয়েছে এই ছবি ইতিমধ্যেই। নেতাজির সঙ্গে কী সম্পর্ক গুমনামী বাবা-র, নেতাজি মৃত্যু রহস্য সবদিকই সুক্ষ্মভাবে ছুঁয়ে গেল এই ছবির টিত্রনাট্য। এবার নয়া মোড়কে মুক্তি পেল ছবির প্রথম পোস্টার। গুগলে সুভাষচন্দ্র বসু টাইপ করে সার্চ করলেই নেতাজি সম্পর্কে যে সংক্ষিপ্ত তথ্য ভেসে উঠছে তা হল, ২৩ জানুয়ারি, ১৮৯৭ সালে কটকে জন্ম হয় সুভাষচন্দ্র বসুর। আর ১৯৪৫ সালের ১৮ অগাস্ট, তাইওয়ানের তাইপেইতে মৃত্যু হয় তাঁর। ফলে রবিবার তাঁর মৃত্যুদিন বলে ধরে নেওয়া হয়। আর এই দিনকে মাথায় রেখেই এবার প্রকাশ্যে এল গুমনামী ছবির প্রথম পোস্টার।এই পোস্টার সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করলেন অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। যেখানে দেখা যায় বিমান দুর্ঘটনার ছবি। এ ক্ষেত্রে উইকি ঐতিহাসিক লিওনার্ড এ গর্ডনের তথ্যের উপর নির্ভর করেছ। এই গর্ডনই তাইপেইর হাসপাতালে ‘বিমান দুর্ঘটনায় অগ্নিদগ্ধ’ সুভাষচন্দ্র বসুর চিকিৎসার দায়িত্বে থাকা চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলে নেতাজির মৃত্যু সম্পর্কে নিশ্চিত হয়েছিলেন। ফলে এই দিনকেই তাঁর মৃত্যুদিন হিসেবে ধরে নিয়ে প্রকাশ্যে এল পোস্টার।সম্প্রতিই ১৫ অগাস্ট মুক্তি পেয়েছে ছবির টিজার। দেড় মিনিটের এই টিজারে সামনে উঠে এল একাধিক ঘটনা। যা ক্রমানুসারে সাজালে গল্পের ধাঁচ দাঁড়ায় খানিকটা অন্য রকমের। এক যে ছিল রাজা ছবির খানিকটা আভাস মেলে এই ছবির টিজারে। যা দেখা মাত্রই স্পষ্ট হয়ে যায় গল্পের মোড় থাকবে কোন দিকে। তা থেকেই নড়ে চড়ে বসেন অনেকেই। নেতাজি কিংবা গুমনামী বাবা, দুই বিতর্কিত অধ্যায় নিয়ে এই ছবির টিজার প্রকাশ্যে আসা মাত্রই তা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন নেতাজি গবেষক দেবব্রত রায়। প্রকাশ্যেই তিনি অভিযোগ জানান, এই ছবিতে যেভাবে নেতাজিকে তুলে ধরা হচ্ছে তা কাল্পনিক, আরোপিত ও হাস্যকর। সম্প্রতিই এই অভিযোগ নিয়ে এসে শ্যুটিং বন্ধের কথাও জানান তিনি। এই সম্বন্ধীয় এক আইনি নোটিশ তিনি পাঠান সৃজিত মুখোপাধ্যায়কে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here