স্ত্রীকে কেরোসিন তেল ঢেলে আগুনে পুড়িয়ে মারার অভিযোগে, স্বামীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

0
496

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ- স্ত্রীকে গায়ে কেরোসিন তেল ঢেলে আগুনে পুড়িয়ে মারার অভিযোগে সুনীল বরণ পৈতণ্ডি নামে এক ব্যক্তির যাবজ্জীবন কারাদণ্ড, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে ছ’মাসের কারাদণ্ডের নির্দেশ দিল বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুর মহকুমা আদালত। খবরে প্রকাশ, ২০০২ সালে বাঁকুড়ার পাঁচবাগা গ্রামের অনিতা মিশ্রের সঙ্গে পার্শ্বলা গ্রামের সুনীল বরণ পৈতণ্ডির বিয়ে হয়। বর্তমানে তাদের এক ছেলে ও মেয়ে রয়েছে। বিয়ের পর থেকে অতিরিক্ত পণের দাবীতে তার স্ত্রীর উপর সুনীল বরণ পৈতণ্ডি শারিরীক ও মানসিক নির্যাতন করতো বলে অভিযোগ। একই সঙ্গে কর্মসূত্রে বিষ্ণুপুরের হাজরা পাড়ায় তারা থাকাকালীন স্বামী সুনীল বরণ পৈতণ্ডি ১৬ জুন, ২০১০ তারিখে দুপুর দু’টোর সময় স্ত্রী অনিতা পৈতণ্ডির গায়ে কেরোসিন তেল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় অনিতা পৈতণ্ডি ২৫ জুন মারা যান। এই ঘটনার জেরে মৃতার বাবা মৃত্যুঞ্জয় মিশ্র বিষ্ণুপুর থানায় জামাই সুনীল বরণ পৈতণ্ডির নামে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমে অভিযুক্ত সুনীল বরণ পৈতণ্ডিকে গ্রেফতার করে। এদিন সরকারী আইনজীবি গুরুপদ ভট্টাচার্য এই খবর জানিয়ে বলেন, এডিশেনাল ডিস্ট্রিক্ট এণ্ড সেশান জাজ আতাউর রহমানের এজলাসে এই বিচারপর্ব শেষ হয়। মঙ্গলবার বিচারক অভিযুক্ত সুনীল বরণ পৈতণ্ডিকে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ধারায় দোষী সাব্যস্ত করেন। এদিন বিচারক আতাউর রহমান দোষী সুনীল বরণ পৈতণ্ডিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো ছ’মাসের কারাদণ্ডের নির্দেশ দিয়েছেন বলে তিনি জানান।অন্যদিকে দোষী সাব্যস্ত হওয়া সুনীল বরণ পৈতণ্ডি নিজে এই রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে যাবেন বলে জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here