দেহ ব্যবসা ও বিউটি পার্লার কাণ্ডে গ্রেফতার ১৪…… ১২ জন মহিলা গেল লিলুয়া হোমে, ৩ জন পুলিশি হেফাজতে

0
3852

সংবাদদাতা, দুর্গাপুরঃ- বিউটি পার্লারে দেহ ব্যবসা চালানোর অভিযোগে গত রাত্রে ইস্পাত নগরীর প্রান কেন্দ্র সিটি সেন্টারের অন্যতম আভিজাত এলাকা অম্বুজা কলোনি থেকে গ্রেপ্তার করা হয় ১৪ জন মহিলা ও পুরুষকে। আসানসোল দুর্গাপুর পুলিশ কমিশনারেট এর তিনটি থানার যৌথ অভিযানে এই চক্র ধরা পড়ে। দি গ্ল্যামারাস নামে এক বিউটি পার্লার থেকে। দুর্গাপুর আসানসোল পুলিশ কমিশনারেট পশ্চিম অঞ্চলের ডিসি অভিষেক গুপ্তা জানান, আজ আদালতে এই ১৪ জনের মধ্যে, ১১ জন কে পাঠান লিলুয়া হোমে ও তিনজন কে পুলিশি হেফাজতের আদেশ দিয়েছন। আসানসোল দুর্গাপুর পুলিশ কমিশনারেট এর একটি বিশেষ গোয়েন্দা দল এই বিষয়ে এক উল্লেখযোগ্য অভিযান চালিয়ে শহরের বিভিন্ন বিউটি পার্লারে দেহ ব্যবসা ঘার্টি গুলিকে উৎখাত করার অভিযানে নেমেছেন। অভিষেক গুপ্তা জানিয়েছেন, তারা অনুসন্ধান চালাচ্ছেন এবং এই মর্মে দুর্গাপুর থানাতে কেস নঃ ৩৫/২ ০২০, ১৮/০১/২০২০ তারিখে ITPA ৩/৪/৫/৬/৭/৮ ও IPC ৩৭০ ধারায় ইনমরাল ট্রাফিকিং অ্যাক্ট অনুসারে কেস করা হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন জয়ন্ত সাহা ও সুস্মিতা জানা ও আরেক ব্যক্তিকে অনুসন্ধান আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য মহামান্য আদালত তাদেরকে ১০ দিনের পুলিশি হেফাজত দিয়েছেন। তিনি আসস্ত করেন যে ১২ জন মহিলা কে লিলুয়া হোমে সুরক্ষিতভাবে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। আসানসোল দুর্গাপুর পুলিশ কমিশনার এর পক্ষ থেকে আবেদন করা হয়েছে নিজের পার্শ্ববর্তী এলাকার খবর আশেপাশের এলাকাতে যদি কোন রকম কোন ঘটনা উল্লেখ দেখতে পাওয়া যায় তাহলে যেন পুলিশের সাথে যোগাযোগ করা হয়। তিনি আরো জানান আর্থিক ভাবে কারা এই ব্যবসাতে লাভবান হচ্ছেন বা এদেরকে কারা সাহায্য করছেন বিভিন্নভাবে সেগুলির তদন্ত হবে। দুর্গাপুরের ইতিহাসে সম্ভবত এই প্রথম একসাথে এত জন দেহ ব্যবসায়ী ধরা পড়লেন ও তাদের চাই ধরা পরল। শিল্পাঞ্চলের মূলত সিটি সেন্টার, বিধান নগর, স্টেশন বাজার এলাকায় বেশ কিছু বড় বাড়িতে ও হোটেলে এই ধরনের ব্যবসার এক জাল ছড়িয়ে আছে বলে শহরবাসীর অভিযোগ করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here