অন্তঃস্বত্বা গৃহবধূকে মারধর করে শ্বশুরবাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ

0
677

সংবাদদাতা, বর্ধমানঃ- অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে বিয়ের পাঁচ মাসের মধ্যে বাড়ি থেকে মেরে তাড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে। শ্বশুরবাড়ি থেকে সোজা রেললাইন ধরে বাঁকুড়ার পাত্রসায়ের নিজের বাপের বাড়ি যাওয়ার উদ্দেশ্যে তাঁকে বনপাশ স্টেশন থেকে উদ্ধার করে গুসকরা বিট হাউসের পুলিস। গুসকরা পুলিস রবিবার গৃহবধূকে বর্ধমানের আদালতে পেশ করা হলে বিচারক মহিলা যেখানে যেতে চান সেখানে পৌঁছে দেওয়ার আদেশ দেন আদালত। গুসকরা পুলিশের প্রশংসায় পঞ্চমুখ ওই গৃহবধূ জানান শশুর বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেওয়ার পর তিনি বোলপুর থানায় গিয়েছিলেন। কিন্তু বোলপুর থানার পুলিশ তার অভিযোগ না নিয়ে বাড়ী ফিরে যেতে বলেন। তাই তিনি আর কোন পথ না পেয়ে রেললাইন ধরে হাটতে শুরু করেন বাঁকুড়ার পাত্রসায়ের তার বাপের বাড়ির উদ্দেশ্যে।

পুলিশ সূত্র থেকে জানা গেছে মোহনপুর যা বোলপুর থানার অধীনে বিয়ে হয়েছিল সেখানেই রাজনন্দিনী চট্টোপাধ্যায়ের। তার স্বামী মহারাষ্ট্রে থাকেন পাইপলাইনের কাজ করেন। শ্বশুরবাড়িতে তার ওপর নিত্যদিনই অত্যাচার হয় বলে জানা গেছে। গত রাত্রে শশুর বাড়ির লোক তাকে দিয়ে সাদা কাগজে সই করিয়ে নেয় এবং ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বাড়ি থেকে বার করে দেন। কোন পথ না পেয়ে ও পুলিশের সাহায্য না পেয়ে তিনি হাঁটতে শুরু করেন রেল লাইন ধরে। কিন্তু গুসকরা বিট হাউসের পুলিশ তার সঙ্গে মানবিক ব্যবহার করে তাকে রাত্রে থানায় রেখে সকাল বেলায় আদালতে হাজির করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here