আন্তরাজ্য লোহা পাচার চক্রের মূল পান্ডা গ্রেফতার করল মেজিয়া থানার পুলিশ

0
703

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ- তদন্তে নেমে ফের বড়সড় সাফল্য পেল বাঁকুড়ার মেজিয়া থানার পুলিশ। প্রায় এক মাস ধরে লাগাতার তদন্ত চালিয়ে বিহারের সারাং জেলা থেকে আন্ত রাজ্য লোহা পাচার চক্রের মূল পান্ডাকে গ্রেফতার করল বাঁকুড়ার মেজিয়া থানার পুলিশ। গত ১৯ ও ২০ অক্টোবর বাঁকুড়ার মেজিয়া থানার জেমুয়া এলাকার একটি বেসরকারি স্টিল কারখানা থেকে দুটি পৃথক ট্রাকে করে প্রায় ৪৮ টন টিএমটি বার নিয়ে বিহারের মধুবনির ও দারভাঙ্গা উদ্যেশ্যে রওনা হয়। ট্রান্সপোর্ট কোম্পানির মাধ্যমে মধুবনিতে পাঠানো ওই বিপুল পরিমান লোহা নিয়ে ট্রাক দুটি নির্দিষ্ট সময়ের পরেও গন্তব্যে না পৌছানোয় মেজিয়া থানার পুলিশের দ্বারস্থ হয় ট্রান্সপোর্ট কোম্পানিটি। ঘটনার তদন্তে নামে মেজিয়া থানার পুলিশ। রাস্তা থেকে উধাও হয়ে যাওয়া লরিগুলির নম্বর ধরে তদন্ত শুরু করে পুলিশ জানতে পারে লরি দুটিতে যে নম্বর ব্যবহার করা হয়েছে সেগুলি ভুয়ো। এরপর লরিগুলির চালকদের মোবাইল ফোন লোকেশন ট্র‍্যাক করে বিহারের সারাং এলাকায় হানা দেয় পুলিশ।

সেখানে স্থানীয় একটি গুদামে হানা দিয়ে চুরি যাওয়া টিএমটি বারের সন্ধান পায় পুলিশ। খোয়া যাওয়া ৪৮ টন লোহার মধ্যে উদ্ধার হয় প্রায় ২৫ টন টিএমটি বার। গ্রেফতার করা হয় আন্ত রাজ্য লোহা পাচার চক্রের মুল পান্ডা রমেশ মাহাতোকে। আজ রমেশকে বাঁকুড়া জেলা আদালতে পাঠানো হয়েছে। এই চক্রে যুক্তদের খোজে তল্লাশি চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here