প্রবল ঝড়ে বিধ্বস্ত নদীয়া, বুধবারও ঝড়-বৃষ্টির আশঙ্কা

0
1260

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ বৈশাখের প্রথম দিনেই কালবৈশাখীর তান্ডবে বিধ্বস্ত নদীয়া জেলার কৃষ্ণনগর। মঙ্গলবার রাতে প্রবল ঝড়বৃষ্টিতে স্বাভাবিক জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়লো জেলার। জানা গেছেম মঙ্গলবার রাত আটটা থেকে কৃষ্ণনগর জুড়ে শুরু হয় প্রবল ঝড়বৃষ্টি। ঝড়ের তান্ডবে একদিকে যেমন প্রচুর গাছ ভেঙ্গে পড়েছে, তেমনি দমকা হাওয়ায় উড়ে গেছে বহু ঘরবাড়ি অস্থায়ী টিনের চাল। শুধু তাই নয়, মঙ্গলবার রাতের কালবৈশাখীর জেরে বিপর্যস্ত বিদ্যুৎ সংযোগও। বহু মানুষ আশ্রয় হারিয়ে সরকারী বা রাজনৈতিক দলের সাহায্যের আশায় দিন গুনছেন। সামনেই লোকসভা ভোট, এরমধ্যে সাধারণ মানুষের এই দুর্দশার দিনে কোনও দল তাদের পাশে দাঁড়ায় সেইদিকেই তাকিয়ে ক্ষতিগ্রস্তরা। অন্যদিকে মঙ্গলবারের পর বুধবারও বিকেল বা সন্ধ্যে নাগাদ কালবৈশাখী ঝড় ও তার সঙ্গে বজ্র-বিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়ে আবহাওয়া দফতর। ফলে বুধবারও দুর্যোগের আশঙ্কা রয়েছে রাজ্য জুড়ে। বৈশাখের শুরু থেকেই রাজ্য জুড়ে তাপমাত্রার পারদ চড়ছে। এর মধ্যেই গ্রীষ্মের দাপট বেড়ে চলেছে। প্রায় প্রতিদিনই তাপমাত্রার পারদব চড়ছে লাফিয়ে লাফিয়ে, সঙ্গে রয়েছে অস্বস্তিকর আর্দ্রতা। ফলে তীব্র গরমে নাভিশ্বাস রাজ্যবাসীর। বৈশাখের প্রখর দাবদাহেই পুড়ছে শহরের মানুষজন। এর মধ্যে কালবৈশাখী তথা ঝড়-বৃষ্টির পূর্বাভাস একদিকে রাজ্যবাসীর জন্য শাপে বর হলেও ক্ষয়ক্ষতির কথা ভাবাচ্ছে গরীব, অসহায় মানুষদের। সেইসঙ্গে ঝড়ের সঙ্গে সঙ্গে শিলাবৃস্টির জেরে বহু জায়গায় চাষবাসেরও ক্ষতি হচ্ছে প্রচুর। তাসত্ত্বেও তীব্র গরম থেকে মুক্তি পেতে কালবৈশাখীর অপেক্ষায় রাজ্যবাসী।