কাঁকসায় প্রধানের স্বামীর বিরুদ্ধে বালি পাচারের অভিযোগ, বাজেয়াপ্ত ট্রক্টর

0
14

সংবাদদাতা,কাঁকসাঃ– একদিকে রাজ্য জুড়ে যখন অবৈধভাবে বালি পাচার রুখতে একাধিক কমিটি গঠন করেছে রাজ্য সরকার, তৎপর রয়েছে ভূমি ও ভূমি রাজস্ব দপ্তর ঠিক তখন তৃণমূল পরিচালিত পঞ্চায়েতের প্রধানের শ্বশুরের ট্রাক্টরে করে নদী থেকে বালি পাচারের অভিযোগ উঠল। ঘটনা পশ্চিম বর্ধমান জেলার কাঁকসা ব্লকের বিদবিহার পঞ্চায়েতের। বিষয়টি নিয়ে একদিকে যেমন চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে অন্যদিকে তেমনি শুরু হয়ে গিয়েছে রাজনৈতিক তরজাও।

প্রসঙ্গত সোমবার সন্ধ্যায় কাঁকসার বিদবিহারের অজয় নদের শিবতলা ঘাট থেকে অবৈধভাবে বালি উত্তোলন করে পাচারের সময় দুটি বালিভর্তি ট্রাক্টর বাজেয়াপ্ত করে কাঁকসা থানার পুলিশ। জানা যায় ওই ট্রাক্টর বিদবিহার গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানের শ্বশুরের নামে রয়েছে। মঙ্গলবার ট্রাক্টরগুলির নাম্বারের মালিকানা দেখে অবৈধভাবে বালি পাচারের মামলা রুজু করেছে পুলিশ। বিরোধীদের অভিযোগ বিদবিহার গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধানের স্বামী উজ্জ্বল সো এবং বিদবিহারের এক ইটভাটা মালিক তাপস ঘোষ দীর্ঘদিন ধরে এলাকার অবৈধ বালি পাচারের সঙ্গে জড়িত। এমনকি কোনও রকম চালান ছাড়াই স্থানীয় অজয় নদ থেকে বালি তুলে তা বিদবিহারের বাসুদেবপুর উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রের পাশে মজুদ করা হয় বলেও অভিযোগ।

যদিও পুরো বিষয়টি নিয়ে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তুলেছেন বিদবিহার গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানের স্বামী উজ্জ্বল সো। তাঁর দাবি গতকাল সন্ধ্যায় এলাকার মন্দিরের জন্য বালি আনা হচ্ছিল। তখন কেউ ষড়যন্ত্র করে পুলিশকে খবর দেয় বলে দাবি করেন তিনি। সামনেই অজয় নদ থাকায় বিভিন্ন কাজে স্থানীয় মানুষ ওই নদীর বালি ব্যবহার করে বলেও দাবি করেন তিনি। অন্যদিকে বাজেয়াপ্ত হওয়া ট্রাক্টরটি তাঁর বাবার নামে রয়েছে জানিয়ে আইন আইনের পথে চলবে বলেও দাবি করেন প্রধানের স্বামী।

অন্যদিকে বিষয়টি নিয়ে সরব হয়েছে বিরোধী দল বিজেপি। পঞ্চায়েত প্রধানের স্বামী অবৈধভাবে বালি পাচারের সাথে জড়িত, হাস্যকর বিষয় বলে কটাক্ষ করেন বিজেপির বর্ধমান সদরের জেলা সহ-সভাপতি রমন শর্মা। পাশাপাশি তিনি দাবি করেন, তাঁদের তরফে একাধিকবার বালি পাচারের অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে কাঁকসা থানায়। তবে কাজের কাজ কিছু হয়নি। এদিকে বিষয়টি নিয়ে পশ্চিম বর্ধমান জেলা পরিষদের সহকারী সভাধিপতি সমীর বিশ্বাস দাবি করেন , অবৈধ কোনও কাজের সঙ্গে যদি দলের কেউ কারা জড়িত থাকে তাঁদের বিরুদ্ধে প্রশাসন তো ব্যবস্থা নেবেই পাশাপাশি দলও ছেড়ে কথা বলবে না। দলীয়ভাবেও তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here