লাউদোহায় গৃহবধূকে খুন করে হাসপাতালে ফেলে চম্পট শ্বশুরবাড়ির লোকের !

0
3456

সোমনাথ মুখার্জি ,লাউ দোহাঃ দুবছর আগে লাউদোহার ইছাপুর গ্রামের বাসিন্দা অসীম দাকে ভালোবেসে বিয়ে করেছিল দুর্গাপুরের কুরুরিয়াডাঙার বাসিন্দা অন্তরা পান্ডা। কিন্তু বিয়ের দুবছরের মধ্যেই অন্তরাকে খুনের অভিযোগ উঠল তার শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে। মৃতার বাবা আশীষ পান্ডার অভিযোগ, মেয়েকে খুন করে দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতলে ফেলে চম্পট দেয় তার শ্বশুরবাড়ির লোকেরা। তার আরও অভিযোগ দুবছর আগে মেয়ের বিয়ের সময় ছেলের পরিবারকে দোতলা বাড়ি করার জন্য মোটা টাকা পণ বাবদ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তাসত্ত্বেও টাকার চাহিদা কমেনি শ্বশুরবাড়ির লোকের। আশীষ পান্ডা জানান, বিয়ের পর প্রায় মেয়েকে বাপের বাড়ি থেকে টাকা আনার জন্য চাপ দেওয়া হত। কিন্তু মেয়ে তা দিতে অস্বীকার করায় তাদের মেয়েকে খুন করে গা ঢাকা দিয়েছে অভিযুক্তরা। মৃতা অন্তরার একটি সন্তান রয়েছে। মেয়ের পরিবারের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে লাউদোহার ফরিদপুর থানার পুলিশ অন্তরার স্বামী অসীম দাকে গ্রেফতার করে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।