হাসপাতালে নিয়ে যেতে দেরি হওয়াতে মৃত্যু হল সাপে কাটা এক যুবকের, এলাকায় চাঞ্চল্য

0
745

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ- একেত এই দীর্ঘদিন ধরে বেহাল অবস্থা তার ওপর গত কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে আরো বেহাল হয়ে পড়েছে যাতায়াত যোগ্য একমাত্র রাস্তা। এবার সেই রাস্তায় ঢুকলো না রোগী বহনকারী অ্যাম্বুলেন্স হাসপাতালে নিয়ে যেতে দেরি হওয়াতে মৃত্যু হল সাপে কাটা এক যুবকের। নাম বাপন রুইদাস। বয়স কুড়ি বছর। এমনই অভিযোগ উঠল বাঁকুড়া জেলার পাত্রসায়ের থানার নারায়ণপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের হদল নারায়ণ পুর গ্রামে।

পরিবার সূত্রে জানতে পারা যায়, রাতে বাপন রুইদাস বাড়িতে ঘুমিয়ে ছিল তখনই সাপ তার পায়ে কামড়ে দেয়। পরিবারের লোকেরা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য তড়িঘড়ি খবর দেন অ্যাম্বুলেন্স কে কিন্তু বেহাল রাস্তায় অ্যাম্বুলেন্স ঢুকতেই পারলো না। ওই যুবককে আত্মীয় পরিজন নিয়ে গিয়ে অ্যাম্বুলেন্সে চাপিয়ে সোনামুখী হাসপাতালে নিয়ে যান সেখান থেকে তাকে বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় কিন্তু শেষ রক্ষা হল না। অবশেষে হাসপাতালে মারা যায় ওই যুবক।

মৃত যুবকের কাকা উজ্জ্বল রুইদাস বলেন, রাস্তা খারাপের জন্য এম্বুলেন্স গ্রামে ঢুকতে পারেনি ফলে ভাইপোকে হাসপাতালে নিয়ে যেতে অনেকটাই দেরি হয়ে গেছে যার কারণে আজ ভাইপোর মৃত্যু হল। এছাড়াও তিনি বলেন স্থানীয় পঞ্চায়েত কর্তৃপক্ষকে রাস্তা সংস্কারের ব্যাপারে লিখিতভাবে জানানো হলেও রাস্তা সংস্কারের কোনরকম উদ্যোগ নেওয়া হয়নি।

এ বিষয়ে নারায়ন পুর পঞ্চায়েতের উপপ্রধান প্রশান্ত সালকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি রাস্তা খারাপের কথা স্বীকার করে নিয়ে বলেন বর্ষার সিজেনে আমরা রাস্তায় কিছু ধাস বালি দিয়েছি রাস্তাটি ঢালাই করা হবে। লকডাউনের কারণে রাস্তা সংস্কার করা যায়নি। তবে পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দেন তিনি। এই ঘটনায় তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে বিজেপি পাত্রসায়র মণ্ডল ওয়ানের বিজেপির সভাপতি তমাল কান্তি গুঁই। তিনি বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলছেন উন্নয়ন হচ্ছে কিন্তু আদৌ সাধারণ মানুষের উন্নয়ন হচ্ছে না উন্নয়ন হচ্ছে তৃণমূল নেতাদের। অবিলম্বে রাস্তা সংস্কারের দাবি জানান তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here