ইস্পাত আবাসন লাইসেন্সিং সমস্যার সমাধানে সম্মত হয়নি শ্রমিক সংগঠনগুলি

0
1277

নিজস্ব প্রতিনিধি, দুর্গাপুরঃ- দুর্গাপুর ইস্পাত কর্তৃপক্ষ কারখানার শ্রমিক সংগঠনগুলিকে ডেকে এক আলোচনায় বসে আবাসন লিজ নিয়ে। আলোচনায় একপ্রকার কোন সিদ্ধান্ত ছাড়াই শেষ হয়। ইস্পাত কর্তৃপক্ষ ছয়টি ইউনিয়নের সাথে আলোচনায় বসে। কিন্তু আলোচনা ছেড়ে চলে যায় আই.এন.টি.টি.ইউ.সি। অনেকদিন ধরে অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিকরা ইস্পাত নগর প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান বিক্ষোভ চালিয়ে যাচ্ছেন আবাসন লিজ দেওয়ার দাবীতে। ইস্পাত কর্তৃপক্ষ গ্র্যাচুইটির টাকা আটকে রেখেছে অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিকদের। তাদের সাফ কথা আবাসন না জমা দিলে টাকা পাবে না অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিকরা। শ্রমিক সংগঠনগুলির দাবী যে আবাসনে যে পরিবার বাস করছেন তাদের সেই আবাসন লিজ দিতে হবে। কিন্তু ইস্পাত কর্তৃপক্ষ জানাই তারা অব্যবহৃত এবং ফাঁকা আবাসন চিহ্নিত করেছে ৬৯৬ টি। ১৯৯৯ সালের পরে যারা অবসর নিয়েছেন এবং আগামী ছয় মাসের মধ্যে যারা অবসর নেবেন তাদের এই ৬৯৬ টি আবাসন লিজে দেওয়া হবে। লিজের মেয়াদকাল হবে ৩৩ মাস। প্রতি স্কোয়ার ফুটে নেওয়া হবে আড়াই টাকা করে বলা সার্কুলার দিয়েছে। শ্রমিক সংগঠনগুলি আলোচনায় প্রস্তাব দেন ইস্পাত কর্তৃপক্ষ ইস্পাত কারখানার অব্যবহৃত জমিকে ননকোম্পানী বা সেপকোর মতো ইস্পাত কর্মীদের লিজ দিক যাতে কোওপারেটিভ করে কর্মীরা আবাসন করতে পারে। ইস্পাত কর্তৃপক্ষ দ্রুত আবাসন লাইসেন্সিং সমস্যার সমাধান করতে চাইছেন বলে জানায় এক আধিকারিক। এত কিছুর পর ও কোন সুনিদির্ষ্ট সিদ্ধান্ত নেওয়া সম্ভব হয়নি এ দিনের শ্রমিক সংগঠনগুলির সাথে ডাকা আলোচনা সভায়। একটি সূত্র থেকে জানা গেছে কিছুদিন আগে রাউলকেল্লা স্টিল প্লান্ট ও বোকারো স্টিল প্লান্ট এর কর্মীরা তাদের আবাসনের জন্য ইস্পাত কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে একটি মামলা দায়ের করেছিলেন। মহামান্য সুপ্রিম কোর্ট অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিকদের পক্ষেই রায় দিয়েছেন বলে জানা গেছে। তাতে বলা হয়েছিল অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিকেরা যে আবাসনে যে পরিবার বাস করছেন তাদের সেই আবাসন গুলিতেই থাকতে পারবেন বা লিজ দিতে হবে। কিন্তু এই দিনের আলোচনায় এই রকম কোনো নির্দেশ নামা দেখাতে পারেন নি শ্রমিক সংগঠন এর কর্মকর্তারা। আজকের এই আলোচনা একপ্রকার কোন সিদ্ধান্ত ছাড়াই শেষ হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here