হাসপাতাল থেকে হারিয়ে যাওয়া রোগীকে দুর্গাপুরে ‘ছেলেধরা’ বলে পিটিয়ে মারল যুবকেরা

0
5162

নিজস্ব প্রতিনিধি, দুর্গাপুর :- হাসপাতাল থেকে হারিয়ে যাওয়া রোগীকে ছেলে ধরা সন্দেহে পিটিয়ে মেরে ফেলল উত্তেজিত জনতা। এবার কোক ওভেন থানার অদূরেই । এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। এ দিকে, বুধবার রাত্রে কাজোড়া থেকে দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালের মর্গে এসে মৃতদেহ শনাক্ত করেন তার পরিবারের লোকজন। বৃহস্পতিবার ওই হাসপাতালেই হারিয়ে যাওয়া রোগীর মরদেহের ময়নাতদন্ত হয় । গত ২১ সেপ্টেম্বর মহকুমা হাসপাতালে জর নিয়ে ভর্তি হন আণ্ডাল এলাকার কাজোড়া সংলগ্ন হরিশপুরের যুবক বিনদানন্দ গোপ। তার বয়স ২৮ বছর। কিন্তু পরদিন সকালেই কাউকে কিছু না জানিয়ে হাসপাতাল থেকে উধাও হয়ে যায় বিনদানন্দ। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তার পরিবারের সাথে যোগাযোগ করে বিষয়টি জানালে পরিবারের পক্ষ থেকে দূর্গাপুরের থানায় একটি নিখোঁজ ডায়েরি করা হয় ২২ শে সেপ্টেম্বর। কিন্তু খোঁজ মেলেনি অসুস্থ যুবকের। এদিকে ২৪ সেপ্টেম্বর বিধান নগরের ওই হাসপাতালেই মুমূর্ষু অবস্থায় এক যুবককে স্থানান্তরিত করে কোক ওভেন থানার পুলিশ। তার দেহের বেশ কিছু জায়গায় ক্ষত, আঘাতর চিহ্ন ছিল। পুলিশ জানায় মৃতপ্রায় ওই যুবককে থানার কাছাকাছি ডি পি ওল্ড গার্লস স্কুলের পাশে আমবাগানে পড়ে থাকতে দেখা যায়। তাকে ‘ছেলেধরা’ সন্দেহে গণপিটুনি গিয়েছিল এলাকার কিছু যুবক। কারণ হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যাওয়া যুবক উদ্দেশ্যহীন ও ভীত-সন্ত্রস্ত অবস্থায় ঘোরাঘুরি করছিল। হাসপাতালে আনার অল্প সময় পরেই সে মারা যায়। পরে বুধবার রাতে পরিবারের লোকেরা তাকে শনাক্ত ক। পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয় বেশ কিছুকাল যাবত মানসিক ভারসাম্যহীনতায় ভুগছিল বিনদানন্দ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here