এ যাবতকালের সর্বাধিক করোনা আক্রান্ত রোগী ভর্তি, শিল্পাঞ্চল দুর্গাপুরের একমাত্র কোভিড-১৯ হাসপাতালে

0
2654

নিজস্ব সংবাদদাতা, দুর্গাপুরঃ- সারাদেশে চলছে লকডাউনের চতুর্থ পর্যায়। লকডাউনের বিধি-নিষেধ অনেক কিছুই শিথিল করা হয়েছে রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে মানুষের সুবিধার্থে। পরিযায়ী শ্রমিকরা বিভিন্ন রাজ্য থেকে ফিরেছেন নিজেদের রাজ্য পশ্চিমবঙ্গে।
রাজ্য সরকারের স্বাস্থ্য দপ্তর ও পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিরন্তর চেষ্টা চালিয়ে যাওয়া হচ্ছে যাতে করোনার মতন মারাত্মক রোগের হাত থেকে বাঁচাতে পারেন মানুষকে।

এবার দুর্গাপুর মহকুমা শাসক অনির্বাণ কোলে এর পক্ষ থেকে একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। ওই বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী দুর্গাপুর শিল্পাঞ্চলের একমাত্র কোভিড-১৯ হাসপাতাল, সনোকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে এখন মোট ১৩ জন করোনা আক্রান্ত রোগী ভর্তি আছেন। তথ্য দিয়ে জানানো হয়েছে করোণা লেভেল ৩ তে ১৩ জন করোনা আক্রান্ত রোগী, করোণা চতুর্থ লেভেলের কোন রোগী নেই ও একজন মাত্র করোণা আক্রান্ত রোগী অক্সিজেন সাপোর্টে আছেন।

এই খবর দুর্গাপুরে ছড়িয়ে পড়ার সাথে সাথে শিল্পাঞ্চলে নতুন করে করোণা আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে। শিল্পাঞ্চল বাসীর প্রশ্ন হঠাৎ করে কি করে এত করোনা আক্রান্ত রোগী ভর্তি হচ্ছেন কোভিড-১৯ হাসপাতাল, সনোকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে? এরা কারা? কোথায় থেকে এসেছেন? সেই সব কোন তথ্যই সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া হচ্ছে না জনসাধারণকে।

অন্যদিকে দুর্গাপুর শিল্পাঞ্চলের একমাত্র কোভিড-১৯ হাসপাতাল, সনোকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে এখনো পর্যন্ত যত রোগী ভর্তি আছেন, এর আগে তার থেকে অধিক রোগী সুস্থ হয়ে তাদের নিজেদের বাড়িতে ফিরেছেন। দুর্গাপুর শিল্পাঞ্চলের একমাত্র কোভিড-১৯ হাসপাতালের কর্ণধার পার্থ কবি জানিয়েছেন “করোনা নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। এটি একটি রোগ মাত্র। উচিত সময় সুচিকিৎসা ও যত্ন দিলেই ঠিক হয়ে যাবেন করোনা আক্রান্ত রোগীরা। আমরা সেই চেষ্টাই করছি।”

উল্লেখ্য কিছু দিন আগেই অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সাইন্সেস এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল দুর্গাপুর শিল্পাঞ্চলে একমাত্র কোভিড-১৯ হাসপাতাল, সনোকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পরিকাঠামো এবং তাদের হাসপাতালে উন্নত মানের পরিষেবাতে ও উল্লেখযোগ্য করোনা আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসায় তারা সন্তুষ্ট। তাই অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সাইন্সেসর কর্তারা একটি চিঠির মাধ্যমে জানিয়েছিলেন এবার থেকে কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের মেডিকেল টেস্ট করতে পারবেন তাদের হাসপাতালে। টেস্ট সেন্টার হিসেবে অনুমোদন পেয়েছিলন এই হাসপাতাল। কেন্দ্রীয় সরকার দ্বারা শুধুমাত্র পশ্চিমবঙ্গের একমাত্র সনোকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল যেখানে করোনা আক্রান্ত রোগীর নমুনা তিনটি পদ্ধতি দ্বারা বিচার করা হয় বা টেস্টিং করা হয়। হাসপাতালের কর্ণধার পার্থ পবি জানান “আতঙ্কিত হবেন না। গুজবে কান দেবেন না। সুস্থ থাকুন, বাড়িতে থাকুন, আমরা আছি সর্বদা পশ্চিমবঙ্গবাসীর সাথে।

উল্লেখ্য ওপরে ‘এই বাংলায়’ পক্ষ থেকে যতগুলি করোনা আক্রান্ত রোগীর খবর দেওয়া হয়েছে, সেগুলি ২৩ মে অব্দি দুর্গাপুর মহকুমা শাসক অনির্বাণ কোলে এর পক্ষ থেকে দেয়া হয়েছিল। কিন্তু আজ এই সংবাদ পরিবেশন কালে ‘এই বাংলায়’ জানতে পারে যে এর থেকেও অধিক প্রায় ১৭ জনের মতন ভর্তি আছেন করোনা আক্রান্ত রোগী দুর্গাপুর শিল্পাঞ্চলে একমাত্র কোভিড-১৯ হাসপাতাল, সনোকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here