এবার পুজোয় মন মাতাবে “বালুচুরি মেঘলা”

0
332

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ- একই শাড়িতে পুজোর চার দিন কাটবে অবাক লাগছে তাইনা হ্যাঁ এটাই সত্যি। বিষ্ণুপুর কৃষ্ণগঞ্জের বাসিন্দা শিল্পী অমিতাভ পাল তার শিল্পীসত্তার মধ্য দিয়ে এমনই দৃষ্টান্ত তৈরি করেছেন। একই শাড়িতে উন্মোচিত হবে পুজোর সপ্তমী অষ্টমী নবমী ও দশমীর সৌন্দর্য। ফলে দর্শনে আসবে বৈচিত্র এবং কমবে ঘাটের খরচও। শিল্পী অমিতাভ পাল বার হাতের এই শাড়িকে দু’টুকরো করেছে । দুটি পটে নানা নকশা আঁকা রয়েছে। পাশাপাশি দুটি রয়েছে আচল আর পার নিজের ইচ্ছামত লেহেঙ্গা আবার শাড়ি যেমন খুশি ভাবে পড়া যাবে।

অমিতাভ বাবু এর আগে অর্থাৎ গত বছর দেড় লাখ দামের বালুচুরি শাড়ি তৈরি করেছেন। তার আগে এক লাখ টাকা দামের শাড়িও তিনি তৈরি করেছেন। তবে এবার করোনা আবহে সাধারণ মানুষের জীবনযাত্রা তটস্থ হয়ে উঠেছে। এ মতাবস্থায় পুজোর উৎসাহে সাধারণ মানুষের কিছুটা হলেও ভাটা পড়েছে। তাই খরচের কথা মাথায় রেখে এরকম অভিনবত্ব “বালুচুরি মেঘলা” শাড়ি তৈরি করে ফেলেছেন তিনি। ইতিমধ্যেই বিষ্ণুপুর জুড়ে সকলের নজর কেড়েছে এই শাড়ি। এই শাড়ি পরলে নারী হয়ে উঠবে অপরূপ সৌন্দর্যের অধিকারী। এই “বালুচুরি মেঘলা” শাড়ির দাম রাখা হয়েছে সাত থেকে বার হাজার টাকার মধ্যে।

শিল্পী অমিতাভ পাল বলেন, করোনা আবহে সকলেরই পকেটে টান পড়েছে তাই অসমীয়া এবং মেঘলার আদলে “বালুচুরি মেঘলা” শাড়ি তৈরি করেছি এটা অল্প খরচে সকলেই গ্রহণ করতে পারবেন। বিষ্ণুপুরের এক গৃহবধূ অনন্যা গাঙ্গুলী শিল্পীর এই শিল্প সত্তাকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন। তিনি বলেন, এটা আমাদের কাছে গর্বের অত্যন্ত আনন্দের এই শাড়ি আমার পছন্দ হয়েছে এবং তিনি বলেন আমিতো কিনবোই অন্যদেরও কেনার আহ্বান জানান তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here