লিচু গাছের ডাল থেকে নব দম্পতির ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার

0
824

সংবাদদাতা, মালদাঃ- নতুন বছরের রাতে যখন সমস্ত মানুষ আনন্দ উল্লাসে ব্যস্ত ঠিক সেই সময়য়ই নিজেদের জীবন শেষ করে দেওয়ার পরিকল্পনা করে বাড়ি থেকে বেরিয়েছিল নব দম্পতি। কিন্তু বাড়ির লোক এরকম যে এক ঘটনা ঘটবে তা ঘুনাক্ষরেও টের পায়নি। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মৃত দুই দম্পতির নাম মিঠুন ঘোষ (২৮), এবং শিউলি ঘোষ (২১)। এরা দু জনেই কালিয়াচক থানার শাহবাজপুরের বাসিন্দা। মিঠুন ও শিউলির মধ্যে বহুদিন ধরেই গভীর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। গত ৯ মাস আগে তাদের মধ্যে ধুমধাম করে বিয়ে সম্পন্নও হয়েছিল। মিঠুন ঘোষ কালিয়াচকের বিরামপুর এলাকার একটি বেসরকারি টিচার্স সেন্টারের পাঠরত ছিল। অন্যদিকে শিউলি গৌড় কলেজের কলা বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্রী ছিল। কিন্তু এদিন সকাল বেলায় তাদের বাড়ি থেকে ১৫০ কিলোমিটার দুরে একটি লিচু বাগানের মধ্যে দুই নব দম্পতির ঝুলুন্ত দেহ উদ্ধার হয়। এরপরেই এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক শোরগোল পড়ে যায়। এরপর মিঠুনের পরিবারের তরফ থেকে কালিয়াচক থানার পুলিশ বিভাগকে খবর দেওয়া হয়। সঙ্গে সঙ্গে কালিয়াচক থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। পুলিশ জানিয়েছে, দুই দম্পতির পরেন শীতবস্ত্র ছিল। বাগানের লিচু গাছের ডালেই দু জনের দেহ ঝুলছিল। তবে কি কারনে দুই নব দম্পতির মৃত্যু হল সে ব্যাপারটি খতিয়ে দেখার জন্য পুলিশ তাদের পরিবারের সঙ্গে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে। অন্যদিকে মৃত মিঠুনের দাদা ফটিক ঘোষ জানিয়েছেন, “আমাদের পরিবারের লোকজন কিছুই বঝতে পারছে না কেন, মিঠুন ও তার স্ত্রী কেন এরকম ভাবে আত্মহত্যা করল। ফটিক বাবু এও জানিয়েছেন, সব কিছু ঠিকঠাকই চলছিল। সংসারে কোনো অশান্তি ছিল না। মাত্র ৯ মাস আগে ওদের ধুমধাম করে বিয়েও হল”। কালিয়াচক থানার পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়া জানিয়েছেন, স্বামী-স্ত্রী দুজনেরই ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়েছে লিছু গাছের ডাল থেকে। মৃত্যুর আসল কারন জানার জন্য ইতিমধ্যেই দেহ দুটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। পুরো ব্যাপারটি নিয়ে কালিয়াচক থানার পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে”।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here