সরকারী টাকা প্রকৃত কাজে ব্যয় না করার অভিযোগ অন্ডালে

0
663
E3E832C9-479B-410B-B994-86004EC530D9

সংবাদদাতা, অন্ডাল

২৯ শে সেপ্টেম্বর, লাউদোহার পর  সরকারী টাকা প্রকৃত কাজে ব্যয় না করার অভিযোগ অন্ডালে । অন্ডালের শ্রীরামপুর ও রামপ্রসাদ পুর পঞ্চায়েত এলাকার কুটির ডাঙায় আনুমানিক ২০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে তৈরি হয়েছিল কঠিন তরল বর্জ্য নিষ্কাশন কেন্দ্র। কিতু ঘটা করে এত টাকা ব্যয়ে নির্মিত কেন্দ্রটির কাজ একদিনের জন্যও শুরু হয়নি বলে স্থানীয়দের অভিযোগ।

কুটির ডাঙ্গা এলাকার এক প্রবীণ বাসিন্দা ধীরেন চৌধুরী বলেন,কঠিন তরল বর্জ্য নিষ্কাশন কেন্দ্রটির শুরু থেকেই বন্ধ। কি কারনে বন্ধ তারা সাধারণ মানুষ জানেন না । তবে এত বড় একটা প্রকল্প গ্রামে তৈরি হয়েছিল ,গ্রামের মানুষ আসায় ছিলেন নিশ্চয় গ্রামের বেকার যুবকদের কর্মসস্থান হবে । আজ কোনও অজানা কারণে প্রকল্প বন্ধ ।


স্থানীয়দের অভিযোগ সন্ধ্যা হলেও সেখানে বসে মদের আসর। একথা সত্য প্রকল্পের ভিতর গিয়ে তার প্রমাণ মেলে। যত্র তত্র পরে আছে মদের বোতল,রয়েছে রান্নাবান্না করার জন্য অস্থায়ী চুলো। এলাকার বাসিন্দাদের মতে এভাবে খোলা অবস্থায় প্রকল্পের ঘরগুলি যদি দীর্ঘদিন ধরে পড়ে থাকে তাহলে দুষ্কৃতীর উপদ্রব বাড়তে পারে এলাকায় । এমনই আশঙ্কায় রয়েছেন গ্রামের মানুষ।
গ্রামের অধিকাংশ মানুষের দাবী যেহেতু কুটির ডাঙ্গা গ্রাম দামোদর পাড় সংলগ্ন গ্রাম ,তাই অযথা এতগুলো টাকা অপব্যয় করে এরকম প্রকল্প না করে যদি সেই টাকায় নদীর পাড় মেরামত করত ব্লক প্রশাসন তাহলে গ্রামের মানুষ বেশি উপকৃত হতে ।


এ ব্যাপারে শ্রীরামপুর পঞ্চায়েতের প্রধান শিপ্রা ব্যানার্জি জানান,তিনি বিষয়টা পঞ্চায়েত গিয়ে আলোচলা করবেন যাতে খুব শীগ্রই প্রকল্পটি র কাজ শুরু করা যায়।
অন্যদিকে অন্ডাল ব্লক সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক ঋত্বিক হাজরা স্থানীয়দের অভিযোগের কথা স্বীকার করে নিয়ে বলেন, তিনি আশাবাদী ওই এলাকায় যে তিনটি প্রকল্প আছে তার সাথে সাথে অন্ডাল এলাকায় যে পাঁচটি কঠিন তরল বর্জ্য নিষ্কাশন কেন্দ্র গুলি আছে সেগুলি কাজ খুব শীগ্রই যাতে শুরু করা যায় তার পরিকল্পনা ব্লক স্তরে চলছে। তিনি জানান,খুব শীঘ্রই প্রকল্পগুলির কাজ শুরু হতে যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here