দুর্গাপুরের শান্ত পরিবেশকে নষ্ট করতে থানায় বোম মারা হয়েছে গুজবে সরগরম দুর্গাপুর

0
587

নিজস্ব সংবাদদাতা, দুর্গাপুর:- বেশ কয়েকদিন ধরে রাজ্য তথা দেশজুড়ে সি এ বি , সি এ এ ও এন আর সি নিয়ে যে বিক্ষোভ চলছে তার আগুন এসে পৌছালো দুর্গাপুরে। অন্যান্য শহরের মতন দুর্গাপুরের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এই বিলের প্রতিবাদে সোচ্চার হয়েছে বিভিন্ন শ্রেণীর বিভিন্ন মানুষ জন। কিন্তু দুর্গাপুর আসানসোল শিল্পাঞ্চলের শুভবুদ্ধি সম্পন্ন মানুষের মধ্যে কখনই তা রুদ্র রূপ ধারণ করেনি। বরাবরের মতনই শিল্পাঞ্চল জুড়ে ছিল এক শান্তির পরিবেশ , তাই কিছু অসামাজিক ব্যক্তি দুর্গাপুরের শান্ত পরিবেশকে উত্তপ্ত করতে আজ বিকেল দিকে একটি ভিডিও বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া। ভিডিওটি একটি সর্বভারতীয় হিন্দি সংবাদমাধ্যমের বহুদিন আগেকার পুরনো ভিডিও দুর্গাপুরের। সুকৌশলে সেই ভিডিওটি কে ব্যবহার করে গোটা দুর্গাপুর জুড়ে এক আতঙ্কের পরিবেশ সৃষ্টি করার চেষ্টা হয়। দুষ্কৃতকারীদের তরফ থেকে বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে দ্রুত ছড়িয়ে দেয়া হয় দুর্গাপুর মধ্যে এই খবরটি। কিন্তু দুর্গাপুর আসানসোল আদতে একটি ছোট শহর বলেই খুব সহজেই দুর্গাপুরের শুভবুদ্ধি সম্পন্ন ও শান্তিপ্রিয় মানুষেরা বুঝে ফেলেন যে এটি একটি সুপরিকল্পিত ঘটনার মাত্র। দুর্গাপুরের শান্ত পরিবেশকে অশান্ত করার চেষ্টা। দুর্গাপুরের বিভিন্ন মহল থেকে অভিযোগ জানানো শুরু হয় দুর্গাপুরের সমস্ত স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন গুলি ও ক্লাব গুলিকে। প্রতিটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ও ক্লাব সদস্যরা দ্রুত এই খবরটি যে একটি গুজব মাত্র তা মানুষের মধ্যে প্রচার করতে শুরু করেন মুখে মুখে । তার ফলও মিলে হাতেনাতে মাত্র কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই সমস্ত ব্যাপারটি যে একটি ভুয়া ঘটনা এবং পুরনো ভিডিও ব্যবহার করে দুর্গাপুরকে অশান্ত করার যে এক চেষ্টা হচ্ছে তা সহজেই বুঝে ফেলেন শহরবাসীরা। এইসব বিষয় নিয়ে দুর্গাপুরের ডিসিপি অভিষেক গুপ্তার কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান তিনি এই ব্যাপারটিতে খুব দুঃখিত ও মর্মাহত। দুর্গাপুরের কোন এক ব্যক্তি বা ব্যক্তিবর্গরা দুর্গাপুরের শান্ত পরিবেশকে অশান্ত করার এক চেষ্টা করেছে। তিনি জানান দুর্গাপুরের সমস্ত শুভবুদ্ধি সম্পন্ন মানুষের কাছে দুর্গাপুর পুলিশের পক্ষ থেকে আবেদন তারা যেন কোনোভাবেই গুজবে কান না দেন। তারা যদি সমাজে কোথাও কোন এই রকম গুজব ছড়াতে কাউকে দেখেন অবিলম্বে ১০০ নম্বরে ডায়াল করে স্থানীয় থানা কে দ্রুত সেই খবর দিন, যাতে দুর্গাপুর আসানসোল শিল্প শহরের কোন রকম অশান্তি বা আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি না ঘটে। দুর্গাপুর আসানসোল পুলিশ সদাসর্বদা সাধারণ মানুষের সাথে আছে এবং তাদের সুরক্ষা দিতে সবসময় তৎপরতা অবলম্বন করবে। এত সবের পরও প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে আসানসোল দুর্গাপুর পুলিশ কমিশনারেটর নিজস্ব সাইবার ক্রাইম সেল থাকা সত্ত্বেও দ্রুত কেন এইসব দুষ্কৃতকারী ও সমাজবিরোধীদের কে দ্রুত চিহ্নিত করা যাচ্ছে না, বা তাদেরকে আইনের সাহায্যে যথাযথ শাস্তির ব্যবস্থা করা হচ্ছে না , জানতে চাইছেন রাজ্যবাসী তথা শান্তিপ্রিয় দুর্গাপুরের শহরবাসী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here