শিবরাত্রি উপলক্ষ্যে শতাব্দী প্রাচীন পানাগড়ের ক্ষেত্রপাল মন্দিরে পূণ্যার্থীদের ভিড়

0
1507

নিজস্ব প্রতিনিধি, পানাগড়ঃ কয়েক দশক ধরে মহা ধুমধামে পূজিত হয়ে আসছে পানাগড় সেনা ছাউনির মধ্যে অবস্থিত ক্ষেত্রপাল বাবা। সারা বছরের মত বিশেষ দিনগুলোতেও ভক্তদের ভিড় উপচে পরে এই মন্দিরে। এই মন্দিরের বিশেষত্ব হলো,বাবা ক্ষেত্রপালের কাছে ভক্তরা মানষিক করেন পিতলের ঘন্টা দিয়ে। এখানে ৫০ গ্রাম থেকে শুরু করে কয়েক কেজি ওজনের ঘন্টা মানসিক করেন ভক্তরা। বিশেষ করে শ্রাবণ মাস ও শিবরাত্রিতে ভক্তদের ভিড় জমে এখানে। শোনা যায় আজ যেখানে সেনা ছাউনি রয়েছে সেখানে দীর্ঘদিন আগে থেকেই পূজিত হন বাবা ক্ষেত্রপাল। পরে সেই মন্দির সেনা ছাউনির ভিতরে চলে যায়। লোক মুখে শোনা যায় কোনও এক সেনা আধিকারিক বহু বছর আগে সেনা ছাউনি থেকে মন্দির তুলে দেবার চেষ্টা করেন। কিন্তু ওই সেনা অফিসার এই ঘটনার পর কঠিন অসুখে পড়েন। অবশেষে একদিন স্বপ্নাদেশ পেয়ে বাবা ক্ষেত্রপালের কাছে কয়েক কেজি ওজনের পিতলের ঘন্টা বাঁধার পর অবশেষে সুস্থ হন তিনি। সেই থেকে তিনি আদেশ দেন ওই মন্দির কোনোভাবেই আর ওখান থেকে ওঠানো হবে না। এর পরে থেকে যত দিন যায় বাবার মাহাত্ম্য দিকে দিকে ছড়িয়ে পড়ে। শোনা যায় অনেক ভক্ত আছেন যারা মানষিক করেন আর মানসিক পূরণ হলে পিতলের ঘন্টা বেঁধে দিয়ে যান। আজও এই মন্দিরে প্রবেশ করলে নানান অলৌকিক ঘটনার কথা শোনার পাশাপাশি বাবার মাহাত্ম্য চোখে পড়ে।