কোরোনার কারণে মেলা বন্ধ, হতাশার সুর পাণ্ডবেশ্বরের পঞ্চপাণ্ডব মন্দির চত্বরে

0
582

সংবাদদাতা,পাণ্ডবেশ্বর:- করোনা অতিমারির কারণে পরপর দুই বছর বন্ধ হয়ে গেল পাণ্ডবেশ্বরের সুপ্রাচীন পঞ্চপাণ্ডব মন্দিরের সংক্রান্তির মেলা। কথিত আছে মহাভারতের পঞ্চপান্ডব অজ্ঞাতবাসে থাকাকালীন এসেছিলেন পাণ্ডবেশ্বরের এই এলাকায় । এখানে এসে পঞ্চপাণ্ডবের দ্বারা প্রতিষ্ঠিত হয় শিবলিঙ্গ । কথিত আছে সেই সময় থেকেই চলে আসছে এই শিবলিঙ্গের পুজো অর্চনা । জনশ্রুতি আছে পঞ্চপাণ্ডবদের নাম অনুসারেই পরবর্তীকালে পাণ্ডবেশ্বরের নাম করণ হয় এলাকার। পঞ্চপাণ্ডব দ্বারা প্রতিষ্ঠিত শিবলিঙ্গের এই মন্দিরটি আজও পঞ্চপাণ্ডব মন্দির নামে পরিচিত । প্রাচীন কাল থেকেই পৌষমাসের সংক্রান্তির দিন পাণ্ডবেশ্বরের এই পঞ্চপাণ্ডব মন্দির প্রাঙ্গনে বসে গ্রামীণ মেলা । মেলাকে ঘিরে ক্রেতা ও বিক্রেতাদের ভিড় থাকে দেখবার মতো। তার সাথে থাকে অজয় নদে মকর স্নান করা পুণ্যার্থীদের ভিড়।

পঞ্চপাণ্ডব মন্দিরের সেবাইত দেবানন্দন সরণদেব জানান, “দীর্ঘ দিন ধরে এই মেলা চলে আসছে। এই মেলা থেকে যেটুকু রোজগার হয় তাতেই চলে মন্দির ও মঠের সারা বছরের কাজকর্ম খরচাপাতি । কিন্তু বিগত দুই বছর কোরোনা অতি মারির কারণে বন্ধ রয়েছে মেলা । যার ফলে মন্দিরের খরচ চালানো সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে।” একদিকে যেমন এলাকার মানুষ মেলা থেকে বঞ্চিত, অন্যদিকে ছোট ছোট ব্যবসায়ীরা যাঁদের রুজিরুটি এইরকম মেলাকে ঘিরেই চলে, সমস্যায় পড়েছেন তারাও । কোরোনার কারণে প্রশাসনের নির্দেশে এবছরও বন্ধ হয়েছে মেলা । মেলায় দোকান দিতে আসা গুড্ডু আনসারি নামে এক ব্যবসায়ী বিষাদের সুরে জানান,”জয়দেব কেঁদুলির মতো এক দিনের জন্যও যদি মেলার অনুমতি দিত প্রশাসন তাহলে সামান্য হলেও রুজিরুটি জুটত।”

যদিও এত কিছু সমস্যার পরও মন্দিরের সেবাইত জানান ,আগে মানুষের জীবন, মেলা তো আবার আসবে । তাই আগামী বছর সবকিছু স্বাভাবিক হোক, দুরারোগ্য ব্যাধি দূরে যাক, মেলা আগামী বছর আরও ভালো করে হবে ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here