অপেক্ষা শেষে অবশেষে রাজ্যের মাটিতে পা রাখলেন ১২০০ জন এ রাজ্যের মানুষ

0
1484

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ- দীর্ঘ দেড় মাসেরও বেশী অপেক্ষা শেষে অবশেষে রাজ্যের মাটিতে পা রাখলেন তারা। মঙ্গলবার সকালে বেঙ্গালুরু থেকে আসা ‘শ্রমিক স্পেশাল’ ট্রেন বাঁকুড়ায় ঢুকলো। এই ট্রেনে বাঁকুড়া সহ বীরভূম , মুর্শিদাবাদ , মালদা, উত্তর ২৪ পরগনা , দক্ষিণ ২৪ পরগনা , হুগলি , কলকাতা, নদীয়া, পূর্ব মেদিনীপুর জেলার পরিযায়ী শ্রমিক সহ বেশ কাছু চিকিৎসা করাতে যাওয়া সাধারণ মানুষ সহ মোট ১২০০ জন এরাজ্যে পৌঁছালেন। অবশেষে বাড়ি ফিরতে পেরে খুশি সকলেই।

চিকিৎসা করাতে বেঙ্গালুরু গিয়ে আটকে পড়া পূর্ব মেদিনীপুরের বাবলু গুছাইত, বীরভূমের বোলপুরের পারমিতা চ্যাটার্জীরা বলেন, ভীষণ সমস্যায় ছিলাম। অতিরিক্ত হোটেল ভাড়া ও চিকিৎসার খরচ সামলে নাজেহাল অবস্থা। অবশেষে বাড়ি ফিরতে পেরে তারা খুব খুশি বলে জানান। নদীয়ার পরিযায়ী শ্রমিক নারায়ণ মণ্ডল বলেন, খূব সমস্যায় ছিলাম। একটা সময় বাড়ি ফেরা অনিশ্চিত হয়ে পড়েছিল। একদিকে কাজ নেই, অন্য দিকে খাওয়া দাওয়াথ সমস্যা সব মিলিয়ে খুব সমস্যার মধ্যে তারা ছিলেন বলে তিনি জানান

বেঙ্গালুরু থেকে আসা ঐ বিশেষ ট্রেনে পরিযায়ী শ্রমিক সহ অন্যান্যদের থার্মাল স্ক্রিনিং ও স্বাস্থ্য পরীক্ষার ব্যবস্থা করেছিল প্রশাসন। পরে বিশেষ বাসের ব্যবস্থা করে প্রত্যেককে নিজের নিজের জেলায় ফেরৎ পাঠানোর উদ্যোগ নেয় প্রশাসন। এদিন বাঁকুড়ায় ট্রেন ঢোকার আগে থেকেই স্টেশনে উপস্থিত ছিলেন জেলা পুলিশ ও প্রশাসনের শীর্ষ আধিকারিকদের পাশাপাশি নির্বাচিত পদাধিকারিকরা । জেলা পরিষদের সভাধিপতি মৃত্যুঞ্জয় মুর্মু বলেন, পরিযায়ী শ্রমিক ও চিকিৎসা করাতে যাওয়া মানুষরা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর প্রচেষ্টায় ফিরে এলেন। প্রত্যেকের স্বাস্থ্য পরীক্ষা সহ অন্যান্য ব্যবস্থা জেলা প্রশাসন করেছে বলে তিনি জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here