লকডাউনে দরিদ্রদের পাশে নীলিমা দাস “বর্ধমানের পুলিশ মা”

0
503

সংবাদদাতা, বর্ধমানঃ- সারা রাজ্য জুড়ে চলছে লকডাউন। নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের প্রয়োজন ছাড়া মানুষজন আর রাস্তায় পথে-ঘাটে বের হচ্ছেন না। রাজ্য সরকারের স্বেচ্ছাসেবক বাহিনী, পুলিশ কর্মী, স্বাস্থ্যকর্মী ও সমাজকর্মীরা বেরিয়ে পড়েছেন গরীব দুস্থ দরিদ্রদের দু’বেলা আহার জোগাতে। রাজ্য পুলিশের পক্ষ থেকে একাধিক থানার বড়বাবুদের নেতৃত্বে চলছে গরীব-দুঃস্থদের চাল ,ডাল ,আলু বিতরণ করার কাজ। কিন্তু বর্ধমানের এক অন্যরকম চিত্র ধরা পড়ল আমাদের ক্যামেরায়। বর্ধমান পুলিশ লাইন হেডকোয়ার্টারে কর্মরত নীলিমা দাস নামে এক মহিলা। তিনি আজ বর্ধমানের “পুলিশ মা” নামে বিখ্যাত হয়েছেন। জানা গেছে নীলিমা দাস তার নিজের এক মাসের মাইনে দিয়ে ১২০ টি দরিদ্র পরিবারকে চাল, ডাল ,আলু ,তেল ,লবণ ,কুমড়ো, বেগুন, টমেটো ,চিনি, সাবান ও ছোটদের জন্য খাবারসহ বিস্কুট দিয়ে সাহায্য করেছেন। কোনরকম সরকারি সাহায্য ছাড়াই এই মহিলা নিরন্তর প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছেন ব্যক্তিগত উদ্যোগে যাতে এইসব দুস্থ গরিব মানুষেরা দুবেলা-দুমুঠো ভালো করে খেতে পান । তাই নিজের জমানো অর্থ থেকেই তিনি এইসব সরঞ্জাম কিনে ভালো করে প্যাকেট করে টোটো ভাড়া করে পৌঁছে যাচ্ছেন দুস্থ গরিব পরিবারগুলির কাছে। রাজ্য পুলিশের মানবিক মুখ অনেক আগেই দেখতে পেয়েছেন লকডাউন এর সময় রাজ্যবাসী। কিন্তু কোন পুলিশকর্মীর নিজের ব্যক্তিগত উদ্যোগে এইরকম ভাবে গরীব দুস্থ কে সাহায্য করার ছবি এই প্রথম ধরা পড়ল । বর্ধমানের সমস্ত গরীব-দুঃস্থ পরিবারগুলির কাছে আজ তিনি “পুলিশ মা”। সারা বর্ধমানবাশী তার এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here