দড়ি বাঁধা পুলিশের ভিডিও ভাইরাল হতেই বরখাস্ত কনস্টেবল, বদলি ওসি

0
1507

সংবাদদাতা, পুরুলিয়াঃ- দড়িতে বাঁধা পুলিশ। বাঁধা হয়েছে কখনো ধান বোঝাই লরির সাথে তো কখনো আবার বাড়ির থামের সাথে। সোমবার রাত্রে তোলা এরকমই একটি ভিডিও ভাইরাল হয় জেলা জুড়ে। যদিও, ইতিমধ্যেই দড়িখুলে ঘটনাস্থল থেকে তাকে শুধু উদ্ধার করাই নয়, চাকরি থেকেও তাকে সাময়িক বরখাস্তও করেছে পুরুলিয়া জেলা পুলিশ। পাশাপাশি বদলিও করে দেওয়া হয়েছে সংশ্লিষ্ট বোরো থানার ওসি তুফান দাঁ কে। তাকে জেলা পুলিশ লাইনে ক্লোজ করাও হয়েছে।
বোরো থানার ফুলবেড়িয়া মোড়। এটি জামতোড়িয়া ফাঁড়ির আওতায় পড়ে। সোমবার সন্ধ্যায় ফুলবেড়িয়া মোড়ে হঠাৎ চাঞ্চল্য। সমীর দে নামে এক কনস্টেবল সেখানে ধানের লরি দাঁড় করিয়ে কালীপূজোর চাঁদা আদায় করছিলেন। চাঁদা দিতে অনিচ্ছুক লরিগুলিকে আটক রেখে চাবি কেড়ে ড্রাইভার, খালাসিকে ধমকাচ্ছেন সমীর এসময়ই কেউ ওই ছবি পোষ্ট করে সোস্যাল মিডিয়ায়। আচমকা দলে দলে যুবকেরা ভিড় করে ফুলবেড়িয়া মোড়ে। চেপে ধরে সমীরকে। বচসার পর উত্তেজিত জনতা টানতে টানতে সমীরকে এনে দড়ি দিয়ে বাঁধে লরির সাথে। ভাইরাল হওয়া ভিডিও তে দেখা যায় – তাকে কখনো বাঁধা হচ্ছে ধান বোঝাই লরির সাথে তো আবার কখনো বাঁধা হচ্ছে দোকানদারের পিলারে। সমীরকে প্রায় আধঘন্টা পর উদ্ধার করে জামতোড়িয়া ফাঁড়ির পুলিশ। জেলা পুলিশ সুপার আকাশ মাঘারিয়া ওই কনস্টেবলের কাছে কৈফয়ৎ চান – তিনি কেন গাড়ী থামিয়ে টাকা তুলছিলেন? জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বুধবার সমীর জেলা পুলিশকে জানান – ওসি তুফান দাঁ’র নির্দেশেই তিনি লরি আটকে চাঁদা তুলছিলেন। উল্লেখ্য, গত সপ্তাহেই পুরুলিয়ার ঝালদা থানার ওসিকে গাড়ী আটকে জোর করে চাঁদা আদায়ের বিষয়ে সতর্ক করেন পুলিশ সুপার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here