জমিতে পুড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে ধানের অবশিষ্টাংশ দুষিত হচ্ছে পরিবেশ

0
500

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ- বাঁকুড়া জেলার পাত্রসায়র ব্লক মূলত কৃষিনির্ভর। বিভিন্ন শাক সবজির পাশাপাশি ধান চাষ একটি গুরুত্বপূর্ণ। আর সেইমতই সকল চাষি ঘরে আমন ধান তুলেছেন।

কিন্তু সমস্যা অন্য জায়গায়, ঘরে ধান তোলার পর ধানের অবশিষ্টাংশ জমিতে পুড়িয়ে ফেলছেন চাষিরা। আর এখানেই কপালে চিন্তার ভাঁজ পরিবেশ বিদ এবং পরিবেশ প্রেমীদের। এভাবে যদি ধানের অবশিষ্টাংশ বছরের-পর-বছর জমিতে পুড়িয়ে ফেলা হয় তাহলে পরিবেশ ক্রমান্বয়ে আরও দ্রুত ধ্বংসের মুখে যাবে। এমনিতেই বিশ্ব উষ্ণায়ন নিয়ে পরিবেশবিদরা বিকল্প চিন্তা ভাবনা করছেন। পাত্রসায়ের ব্লক এর বিভিন্ন প্রান্তে ধান কেটে নেওয়ার পর ধানের অবশিষ্টাংশ এভাবে পুড়িয়ে ফেলা হচ্ছে। হুশ ফিরছে না প্রশাসনের।

সঞ্জয় ঘোষ নামে এক ধানচাষী বলেন, ক্ষতি আমরা জেনেই করছি। ধানের অবশিষ্টাংশ যদি তুলে ফেলতে হয় তাহলে খরচ অনেকটাই বাড়বে। এমনিতেই চাষে লভ্যাংশ কমে যাচ্ছে। আর সে কারণে জমিতেই পুড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে ধানের অবশিষ্টাংশ।

পাত্রসায়ের ব্লকের সহ কৃষি অধিকর্তা রঞ্জন লোহারা বলেন, ইতিমধ্যে আমরা ক্যাম্প করে ধানের অবশিষ্টাংশ পোড়ানো অনেকটা বন্ধ করতে পেরেছি। তিনি বলেন আমরা চেষ্টা করছি আগামী দিনে প্রচার এর মাধ্যমে কিভাবে ধানের অবশিষ্টাংশ পোড়ানো পুরোপুরি বন্ধ করা যায়। এছাড়াও তিনি বলেন এতে জমির উর্বরতা শক্তি অনেকটাই কমে যায়। তবে আগামী দিনে কোন চাষিকে ধানের অবশিষ্টাংশ না পুড়ানোর আবেদন জানিয়েছেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here