পুরুলিয়ায় ভোটের দিন কিশোরীকে ধর্ষণের চেষ্টা, গ্রেফতার জওয়ান

0
1228

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ লোকসভা নির্বাচনের ষষ্ঠ দফা ভোট অর্থাৎ ১২ই মে পুরুলিয়ায় এক আদিবাসী কিশোরীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে গ্রেফতার করা হল কেন্দ্রীয় বাহিনীর এক জওয়ানকে। ঘটনা পুরুলিয়ার কাশীপুর থানা এলাকার। জানা গেছে রাজবীর সিং নামে অভিযুক্ত ওই বিএসএফ জওয়ান বিএসএফের এএসআই পদে ছিলেন। অভিযোগ, গত ১২ই মে ভোট চলাকালীন কাশীপুরের আগরডি চিত্রা গ্রাম পঞ্চায়েতের ভাটিন এলাকার জঙ্গলে নয় বছরের এক কিশোরীকে একা পেয়ে তাকে ধর্ষনের চেষ্টা করে। ওই নাবালিকার চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ঘটনাস্থলে পৌঁছালে অভিযুক্ত ওই বিএসএফ জওয়ানকে হাতেনাতে ধরে ফেলে। এই ঘটনা জানাজানি হতেই আশেপাশের এলাকা থেকে লোকজন ভোট বন্ধ রেখে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। খবর পেয়ে কাশীপুর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছালে পুলিশের সামনেই চলে বিক্ষোভ। দুঘণ্টার জন্য ওই কেন্দ্রে ভোট বন্ধও হয়ে যায়। এরপর নির্যাতিতা ওই কিশোরীর পরিবারের তরফে ১২ই মে রাতে অভিযুক্ত জওয়ানের নামে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে মঙ্গলবার সোমবার পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে। মঙ্গলবার ধৃতকে আদালতে পেশ করা হলে বিচারক তাকে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই সুর চড়িয়েছে বিরোধী দল। পুরুলিয়া জেলা পরিষদের সদস্য সৌমেন বেলঘরিয়ার বক্তব্য, ভোটে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করতে এসে কেন্দ্রীয় বাহিনীর এইধরনের ঘটনা নজিরবিহীন। যেখানে কেন্দ্রীয় বাহিনীর ওপর ভরসা করে মানুষ ভোটের লাইনে দাঁড়াচ্ছে সেখানে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানের এহেন ঘৃণ্য আচরণে আতঙ্কিত সাধারণ মানুষ। একদিকে ভোটের দিনে কিশোরোকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ, অন্যদিকে ভোট পরবর্তী পুরুলিয়ায় বিস্ফোরণ। দুই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য পুরুলিয়া জুড়ে।