লোকসভা ভোটের রেজাল্ট নিয়ে স্ট্যাম্প পেপারে লক্ষ টাকা বাজি !

0
7012

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ লোকসভা ভোট নিয়ে বেটিং ! তাও কিনা কোর্ট পেপারে লিখিত ভাবে। হ্যাঁ এমনই অবাক করা ঘটনা সামনে এসেছে পুরুলিয়া জেলায়। গত ১২ই মে পুরুলিয়া জেলায় লোকসভা ভোট শেষ হয়েছে। জেলার দুই প্রতিদ্বন্দ্বী তৃণমূল প্রার্থী ডাক্তার মৃগাঙ্ক মাহাতো এবং বিজেপি প্রার্থী জ্যোতির্ময় সিং মাহাতো। ভোটের আগে থেকে ভোট পেরিয়ে যাওয়ার পরেও চায়ের ঠেকে, পাড়ার রকে ২৩শে মে কে হাসবে শেষ হাসি সেই নিয়ে চলছে বিস্তর আলোচনা। জল্পনা এমন পর্যায়ে যে পুরুলিয়ার আসনে কে জিতবে তা নিয়ে বাজি পর্যন্ত ধরা হয়ে গিয়েছে। একটা নয় জেলায় এই মুহুর্তে একাধিক ব্যাক্তি স্ট্যাম্প পেপারে লিখিত ভাবে এক লক্ষ টাকার বাজি ধরেছেন। যেমন পুরুলিয়া মফস্বল থানার ঘোঙ্গা গ্রামে অমৃত মাহাতো ও মানিক মাহাতোর মধ্যে হয়েছে বাজি। কোর্ট থেকে স্ট্যাম্প পেপার কিনে নিয়ে এসে তাতে লেখা হয়েছে তৃণমূল প্রার্থী ডাঃ মৃগাঙ্ক মাহাতো পুরুলিয়া আসনে জয়লাভ করলে অমৃত মাহাতো এক লক্ষ টাকা পাবেন এবং বিজেপি প্রার্থী জ্যোতির্ময় সিং মাহাতো জয়লাভ করলে এক লক্ষ টাকা পাবেন মানিক মাহাতো। নজিরবিহীন এই বেটিং চলছে পুরুলিয়া জেলাজুড়েই। এখানেই থেমে নেই গত ১৫ই মে আবারও পুরুলিয়া জেলারই এক ব্যক্তি ভোটের ফলাফল নিয়ে বাজি ধরেছেন। সেখানে নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্প পেপারে লেখা হয়েছে, “অদ্য আমরা পঞ্চ ভদ্রায়ণ থাকিয়া 15 .5 .2019 বরুন ও ধনঞ্জয় মাহাতো চুক্তি হইল| মৃগাঙ্ক মাহাতো লোকসভা ভোটে জিতলে ধনঞ্জয় এক লক্ষ কুড়ি হাজার টাকা দিবে তেমনি জ্যোতির্ময় সিং মাহাতো জিতলে বরুন মাহাতো ধনঞ্জয়কে এক লক্ষ কুড়ি হাজার টাকা দিবে|” কোথাও এক লক্ষ টাকা আবার কোথাও তারও বেশি। পুরুলিয়া জেলা জুড়ে এইধরণের নজিরবিহীন বেটিংয়ের ঘটনা রাজ্যে বিরল। এর আগে কোনও ভোটে এইধরনের বেটিংয়ের খবর শোনা যায়নি। যতই গণনার দিন এগিয়ে আসছে ততই বাড়ছে রাজনৈতিক উত্তাপ, বাড়ছে এইধরনের বাজি ধরার ঘটনাও। যা নিয়ে প্রশাসনিক মহলেও চাপ বাড়ছে ক্রমশ, কারণ বিপুল পরিমাণ টাকা বাজি ধরা নিয়ে ভোট গণনা বা তার পরবর্তী জেলা জুড়ে গন্ডগোলের আশঙ্কাও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। এরকম পরিস্থিতিতে পুলিশ প্রশাসন কি পদক্ষেপ নেয় আপাতত সেই অপেক্ষা।