বেসরকারি হাসপাতালে অমানবিক মুখ দেখল শিল্পাঞ্চলবাশি

0
2390

নিজস্ব সংবাদদাতা, দুর্গাপুরঃ- আজ থেকে মাত্র দু’দিন আগেই রাজ্যের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সমস্ত বেসরকারি হাসপাতাল গুলিকে কে সতর্ক করেছিলেন যাতে স্বাস্থ্য সাথী বা গরিব মানুষের স্বাস্থ্য নিয়ে ছিনিমিনি না করা হয়। গরিব মানুষের সুযোগ-সুবিধা যেন হাসপাতাল গুলি ঠিক মতন দেয়। যদি কোন ভাবে বেসরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে অভিযোগ জমা হয় থানায় বা ডিএম এর কাছে তাহলে তার লাইসেন্স বাতিল করতে পারেন বলে প্রশাসনিক বৈঠকে জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। এই ঘোষণার মাত্র ৭২ ঘণ্টার মধ্যেই দুর্গাপুরের এক বেসরকারি হাসপাতালের অমানবিক মুখ দেখল শিল্পাঞ্চলবাঁশি। দুর্গাপুরের কালীগঞ্জের বাসিন্দা নাসিম মন্ডল (৫৫) আজ হাসপাতালের বিল বাবদ টাকা জমা দিতে দেরি হওয়ায় , রোগীকে ইমার্জেন্সির সামনে বাইরে protest in hospitalবসিয়ে রাখা হয়। রোগীর শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে অসুবিধা হওয়ায় তার পরিবারের লোকজনেরা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করেন যাতে তারা রোগীকে সত্বর অক্সিজেন দেওয়ার বন্দোবস্ত করেন। কিন্তু হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ টাকা ঠিক সময় জমা না হওয়ার কারণে তা দিতে অস্বীকার করেন। রোগী নাসিম মন্ডলের পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয় যে শুধুমাত্র অক্সিজেনের অভাবে মারা গেছে তাদের রোগী। রোগীর মৃত্যুর পর তার মৃতদেহ হাসপাতালের সামনে রেখে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন এলাকাবাসীরা। এমতো অবস্থায় হাসপাতালের নিরাপত্তারক্ষীদের সাথে রোগীর পরিজনদের বচসার জেরে অল্পবিস্তর ভাঙচুর হয় হাসপাতাল চত্বরে। বিশাল পুলিশবাহিনী পৌঁছায় আই কিউ সিটি হাসপাতালে। শেষ পাওয়া খবর অনুসারে হাসপাতালের বাইরে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন কালিগঞ্জ এলাকার বাসিন্দারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here