একদিকে মাস্ক বিতরন, অন্যদিকে রাখি বন্ধন উৎসব পালিত হল পানাগড়ের কমিউনিটি হলে

0
406

সংবাদদাতা, কাঁকসাঃ- এদিন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কাঁকসার বিডিও সুদীপ্ত ভট্টাচার্য, গলসির বিধায়ক অলোক কুমার মাঝি,কাঁকসা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান শুক্লা সিং,কাঁকসা গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য স্বপ্না বৈদ্য সহ পঞ্চায়েত সদস্যরা ও পঞ্চায়েত সমিতির সদস্যরা। প্রদীপ প্রজ্জলনের পাশাপাশি নানান সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এদিন রাখি বন্ধন উৎসব পালন করা হয়। পাশাপাশি এদিন রাখি বন্ধন উৎসব উপলক্ষ্যে মাস্ক বিতরণ করা হয়। গলসির বিধায়ক অলোক কুমার মাঝি বলেন সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে মানুষকে সচেতন করে উৎসব পালন করা হচ্ছে। করোনা সচেতনতায় মানুষকে মাস্ক,স্যানিটাইজার বিতরণ করা হচ্ছে। পাশাপাশি সকলকে সচেতন করা হোচ্ছে যাতে সবাই মাস্ক পরে এবং সময় সময় স্যানিটাইজার দিয়ে হাত জীবাণুমুক্ত করে। রোগটাকে তারা ভালো করতে পারবেন না। কিন্তু রোগটা যাতে না হয় তার জন্য যে সমস্ত পদ্ধতি আছে তা অবলম্বন করার কথা বলা হচ্ছে সবাইকে।


অন্যদিকে, রাখি পূর্ণিমা উপলক্ষে কাঁকসা থানার পুলিশ কর্মীরা,পানাগড় ট্রাফিক পুলিশের কর্মীরা, ও কাঁকসা ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকে এলাকার মানুষকে করোনা সচেতনতার প্রচার ও সাধারণ মানুষকে মাক্স বিলি করা হলো। এদিন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কাঁকসা থানার ভারপ্রাপ্ত আইসি অর্ণব গুহ, কাঁকসা ভিডিও সুদীপ্ত ভট্টাচার্য, আসানসোল দুর্গাপুর কমিশনারেট এর কাঁকসা এসিপি শাশ্বতী শ্বেতা সামন্ত সহ, পানাগড় প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে বি এম ও এইচ ও অন্যান্যরা। কাঁকসা থানার ভারপ্রাপ্ত আইসি অর্ণব গুহ বলেন প্রতিবছর রাখি উৎসব পালন করা হয় কাঁকসা থানার পক্ষ থেকে, তবে করোনার জন্য এবছর রাখি উৎসবের দিনে এলাকার মানুষকে সচেতন করতে তাই একটু ভিন্ন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে সচেতন করে তাদের মুখে মাক্স পরিয়ে দেওয়া হয়। পাশাপাশি এলাকার মানুষকে করো না সচেতনতায় কি কি করনীয় তার প্রচার করা হয় এদিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here