সম্প্রীতির রামনবমী পাণ্ডবেশ্বরে, দুর্গাপুরে রামনবমীকে ঘিরে তৃণমূল-বিজেপি তরজা

0
1421

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায় – সারাদেশ মেতে পবিত্র রামনবমী অনুষ্ঠানে সামিল হতে। সকাল থেকেই গোটা দেশসহ রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় রামনবমী উপলক্ষ্যে উৎসবের আবহ। সেখানে ব্যতিক্রম নয় পাণ্ডবেশ্বরের কুমারডিহি ও সি পি কলোনি এলাকাও । দীর্ঘ ৬ বছরের মতো শনিবারও রামনবমী উপলক্ষ্যে বিশেষ উৎসবের আয়োজন করা হয়েছিল স্থানীয় হনুমান মন্দির কমিটির তরফে। তবে যখন সারা দেশে রাজনৈতিক দলগুলির মধ্যে সাম্প্রদায়িক ইস্যু নয়ে বাক-বিতন্ডা লেগেই রয়েছে তখন শনিবার সম্প্রীতির রামনবমী পালন করল পাণ্ডবেশ্বরের কুমারডিহি ও সি পি কলোনি এলাকার মানুষজন। জানা গেছে, বিগত ছয় বছর ধরে পাণ্ডবেশ্বর এলাকার ওই মন্দিরে রামনবমী পালন করে আসছেন এলাকার মানুষ। কিন্তু তাদের এই মন্দির কমিটির সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন প্রায় সমস্ত ধর্ম-সম্প্রদায়ের মানুষ। মন্দিরের পুরোহিত ভজন চক্রবর্তী জানান, জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে এই পূজায় অংশগ্রহণ করেন এলাকার সমস্ত যুবক ও অন্যান্য ভক্তরা। তিনি জানান, পুজোর সমস্ত খরচ ওঠে দান-দক্ষিণা থেকেই। মূলত এই ভাবেই চলে আসছে দীর্ঘ ৬ বছর ধরে তাদের হনুমান মন্দিরের পুজো। রামনবমী উপলক্ষে শনিবার সকালে কলস যাত্রার মাধ্যমে শুরু হয় বজরংবলির পুজোর অনুষ্ঠান। মন্দির কমিটির এক সদস্য শেখ সাঈদ জানান, এই পুজোর সঙ্গে যুক্ত থাকতে পেরে তারা ভীষণ আনন্দিত। এককথায় যেখানে সারাদেশে সাম্প্রদায়িকতা নিয়ে অস্থির পরিবেশ তৈরী হয়েছে সেখানে পাণ্ডবেশ্বরের কুমারডিহি গ্রামের ওসিপি কলোনির হনুমান মন্দিরের সদস্যরা দেশবাসীর কাছে এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন। একদিকে যখন সম্প্রীতির রামনবমী উদযাপন করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করল পান্ডবেশ্বরের সাধারণ মানুষ তখন দুর্গাপুরে রামনবমীর উৎসবে তৃণমূল প্রার্থী মমতাজ সংঘমিতার উপস্থিত থাকা নিয়ে তৃণমূল-বিজেপির মধ্যে শুরু হয়ে গেল রাজনৈতিক বাদানুবাদ। জানা গেছে, শনিবার বর্ধমান-দুর্গাপুর লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী মমতাজ সঙ্ঘমিতা সহ জেলা তৃণমূলের একাধিক নেতৃত্ব দুর্গাপুরের পলাশডিহায় অনুষ্ঠিত রামনবমীর এক অনুষ্ঠানে যোগ দেন। সেই খবর ছড়িয়ে পড়তেই নড়েচড়ে বসে বিজেপি। বিজেপি নেতা অমিতাভ ব্যানার্জি জানান, ভোট এসেছে বলে এখন রামের শরণাপন্ন হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস, আবার ভোট শেষ হলেই গ্রামের বদনাম করবে তৃণমূল। এর পাল্টা হিসেবে অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকা তৃণমূলের জেলা কার্যকরী সভাপতি উত্তম মুখার্জীর বক্তব্য, ভগবান রাম বিশেষ কোনও রাজনৈতিক দলের সম্পত্তি নয়। তিনি জানান, আগামী দিনে দেশবাসী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ভারতমাতা হিসেবে পুজো করবেন।