ভারতীয়, তাই চিত্র সাংবাদিকের মাথার উপর দিয়ে গাড়ি চালিয়ে দিল আফগান তালিবানরা

0
357

এই বাংলায় ওয়েব ডেস্কঃ- ভারতীয় বলে চিত্র সাংবাদিকের মাথার উপর দিয়ে গাড়ি চালিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল আফগানিস্তানে তালিবানিদের বিরুদ্ধে। আমেরিকা সেনা ও ন্যাটো বাহিনী ফিরে যেতেই সে দেশের একাধিক শহর ও এলাকা দখল করে নিয়েছে তালিবানরা। আফগান সেনা বাহিনীর সঙ্গে রীতিমতো যুদ্ধ চলছে তালিবানিদের। এই পরিস্থিতিতে গত বৃহস্পতিবার আফগানিস্তানের কন্দহরের স্পিন বোল্দাকে সেনা এবং তালিবানের গুলিযুদ্ধের মধ্যে মৃত্যু হয় ভারতী চিত্র সাংবাদিক বছর ৩৮ এর দানিশ সিদ্দিকির। সে সময়ে আফগানিস্তানের সেনাবাহিনীর বিশেষ শাখা ‘আফগান স্পেশাল ফোর্সেস’-এর সঙ্গে ঘুরছিলেন তিনি। পুলিৎজ়ার জয়ী দানিশ সংবাদ সংস্থা রয়টার্সে কর্মরত ছিলেন।

গুলিতে ঝাঁঝরা হয়ে গিয়েছিল দানিশের শরীর। তার জেরেই মৃত্যু বলে উল্লেখ করা হয়েছে কাবুলে অবস্থিত ভারতীয় দূতাবাসের দেওয়া দানিশের মৃত্যুর শংসাপত্রে । তবে অনেকেরই সন্দেহ, দানিশের দেহটি যে-ভাবে ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়, তা থেকে এটা অন্তত স্পষ্ট যে তার উপর অত্যাচার চালানো হয়েছিল। ‘প্রত্যক্ষদর্শী’ বিলাল অবশ্য এমনটাই দাবি করেছেন। বিলাল ‘আফগান স্পেশাল ফোর্সের কমান্ডার। গত পাঁচ বছর ধরে আফগান সেনাবাহিনীতে রয়েছেন। দানিশ যে আফগান বাহিনীর সঙ্গে ঘুরছিলেন সেই বাহিনীরই কমান্ডার বিলাল।

বিলালের দাবি পাকিস্তান সীমান্তবর্তী ওই অঞ্চলে তালিবানের ছোড়া গুলিতেই মৃত্যু হয় দানিশের। তবে তালিবান কমান্ডারেরা দানিশের পরিচয় পত্র থেকে দানিশ ভারতীয় জানতে পেরেই তেতে ওঠে। এরপরই তার দেহটি বিকৃত করে দেওয়ার নির্দেশ দেয়। সেই মতো দানিশের মাথার উপর দিয়ে চালিয়ে দেওয়া হয় একটি গাড়ি। তার আগেই অবশ্য মৃত্যু হয়েছিল ভারতীয় চিত্র সাংবাদিকের। ভারত এবং ভারতীয়দের প্রতি আক্রোশ ও ঘৃণার থেকেই এই কাজ করা হয়েছে বলে জোর গলায় দাবি করছেন বিলাল।

যদিও দানিশের মৃত্যুর দায় নিতে রাজি হয়নি তালিবান। এক ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে ফোনে তালিবানের মুখপাত্র মৌলানা ইউসুফ আহমাদি জানিয়েছেন তালিবানিদের হাতে মৃত্যু হয়নি ভারতীয় চিত্র সাংবাদিকের। যদিও গত শুক্রবার দুপুরে রেড ক্রসের আন্তর্জাতিক কমিটির হাতে দানিশের ক্ষতবিক্ষত দেহটি তুলে দিয়েছিল তালিবানই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here