নাবালক যুগলের মৃতদেহ উদ্ধার কে কেন্দ্র করে সোনামুখীতে চাঞ্চল্য

0
391

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ-

নাবালক প্রেমিক যুগলের পচাগলা মৃতদেহ উদ্ধার ঘিরে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ালো বাঁকুড়ার সোনামুখী থানা এলাকায়। শনিবার স্থানীয় বাবুরবাঁধ পলাশ তুরির জঙ্গল থেকে অর্পিতা ঘোষ (১৫) ও বিষ্ণু রায় (১৭) মৃতদেহ পুলিশ উদ্ধার করে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে খবর, নারায়ণসুন্দরী গ্রামে অর্পিতা ঘোষের সঙ্গে মহেশপুর গ্রামের বিষ্ণু রায়ের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। গত ২২ ডিসেম্বর থেকে তারা বাড়ি থেকে নিখোঁজ ছিল। এদিন সকালে স্থানীয় মানুষ জঙ্গলের মধ্যে যুগলের মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেন। পরে সোনামুখী থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে। পুলিশের প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, প্রেমিক-প্রেমিকার বাড়ির লোক তাদের এই সম্পর্ক মেনে না নেওয়ায় জঙ্গলে গিয়ে ঐ দু’জন আত্মঘাতি হয়েছে। পুলিশের পক্ষ থেকে একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে ঘটনার তদন্তের পাশাপাশি মৃতদেহ দু’টি ময়নাতদন্তের জন্য বিষ্ণুপুর জেলা হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে বলে জানানো হয়েছে।

মৃতা অর্পিতা ঘোষের জেঠু অশোক কুমার ঘোষ, মামা উত্তম ঘোষরা বলেন, বেশ কয়েক দিন ধরে ওরা দু’জনে নিখোঁজ ছিল। বিষয়টি পুলিশকে মৌখিকভাবে জানানো হয়েছিল দাবী করে তারা বলেন, দু’জনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল বলে তারা কেউ জানতেন না। এদিন মৃতদেহ উদ্ধারের খবর পেয়ে তারা থানায় এসে সনাক্তকরণ করেন বলে জানান। মৃত বিষ্ণু রায়ের জেঠু বারু রায়ও দাবী করেন, দু’জনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল বলে জানতেন না। তিনি প্রায় কুড়ি দিন বাইরে কাজের সূত্রে ছিলেন, শুক্রবার বাড়ি ফিরে নিখোঁজের বিষয়টি জানতে পারেন বলে তিনি জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here