খড় বোঝাই চলন্ত লরিতে আগুন, দুই লরির মুখোমুখি সংঘর্ষে মৃত ১

0
903

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ ফের চলন্ত লরিতে আগুন।এবার খড় ভর্তি চলন্ত লরিতে অগ্নিকান্ডের ঘটনার সম্পূর্ণ ভস্মীভূত হয়ে গেল একটি লরি। ঘটনা দক্ষিণ ২৪ পরগনার বারসত রথতলা মোড়ে ৩৪ নঙ্গ জাতীয় সড়কের। জানা গেছে, বুধবার রাতে একটি খড় বোঝাই লরি মধ্যমগ্রাম থেকে বারাসতের দিকে আসার সময় জাতীয় সড়কের ওপর আচমকায় আগুন লেগে যায়। খড়ের মতো অতি দাহ্য বস্তু থাকায় আগুন মুহূর্তে গোটা লরিতে ছড়িয়ে পড়ে। গাড়িতে আগুন লেগেছে বুঝতে পেরেই জাতীয় সড়কের ওপরেই গাড়ি দাঁড় করিয়ে রেখেই চম্পট দেন লরি চালক ও খালাসী। ফলে জ্বলন্ত অবস্থায় ট্রাকটি জাতীয় সড়কে দাঁড়িয়ে যাওয়ায় অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে জাতীয় সড়ক। স্থানীয় লোকজন জ্বলন্ত লরিটিকে দেখতে পেয়ে দমকলে খবর দেয়। দমকলের দুটি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে গিয়ে বেশ কিছুক্ষনের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে আগুনে সম্পূর্ণ ভস্মীভূত হয়ে গেছে লরিটি। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক এক দমকলকর্মীর অনুমান, গাড়িতে জ্বলন্ত বিড়ি বা সিগারেট অথবা দেশলাই থেকে আগুন লেগে থাকতে পারে। অন্যদিকে বাঁকুড়ায় দুই লরির মুখোমুখি সংঘর্ষ মৃত্যু হল এক লরি চালকের। ঘটনায় আহত আরও দুই। জানা গেছে, বাঁকুড়ার কোতুলপুরের গোপালপুর এলাকায় আরামবাগ ও বিষ্ণুপুরগামী দুটি লরির মুখোমুখি সংঘর্ষের জেরে এই দুর্ঘটনা। মৃতদেহটি উদ্ধার করে বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে ময়নাতদন্তের জন্য । আহত দুজনকে প্রথমে গোগরা হাসপাতাল এবং পরে আরামবাগে তাদের রেফার করা হয়। ঘটনার পরেই স্থানীয় মানুষ রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভে সামিল হলে যানচলাচল বন্ধ হয়ে যায়। সমস্যায় পরেন পথচলতি মানুষ। পরে কোতুলপুর থানার পুলিশের তৎপরতায় অবরোধ ওঠে ও যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।