ট্যাব কিনতে স্কুল পড়ুয়াদের অ্যাকাউন্টে ১০ হাজার টাকা , জানালেন মুখ্যমন্ত্রী

0
491

এই বাংলায় ডেস্কঃ– করোনা আবহে এখন অনলাইনে ক্লাস করতে হচ্ছে পড়ুয়াদের। তাই অনলাইনে পড়াশুনোর জন্য দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের ট্যাবলেট দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এখন যে সমস্ত ছাত্রছাত্রীরা দ্বাদশ শ্রেণিতে পড়ে এবং ২০২১ সালে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দেবে, সেই সমস্ত ছাত্রছাত্রীদের অনলাইন ক্লাস করতে যাতে সুবিধা হয় সে জন্য তাদের ট্যাব দেওয়ার কথা জানিয়েছিলেন । কিন্তু তার পরিবর্তে পড়ুয়াদের অ্যাকাউন্টে সরাররি টাকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। মঙ্গলবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে একথা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। আগামী ৩ সপ্তাহের মধ্যে পড়ুয়াদের অ্যাকাউন্টে সরাসরি ১০ হাজার টাকা জমা করে দেওয়া হবে। সমস্ত সরকারি, সরকার পোষিত এবং সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দ্বাদশ শ্রেণির প্রত্যেক পড়ুয়া সরকারি এই সহায়তা অর্থ পাবে বলে জানিয়েছেন তিনি। এর ফলে উপকৃত হবে স্কুল ও মাদ্রাসা মিলিয়ে ৯ লক্ষ ৫০ হাজার ছাত্রছাত্রী।

কিন্তু ট্যাবলেটের বদলে টাকা কেন?

নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, দরপত্র ডেকেও সপ্তাহে বড়জোড় দেড় লক্ষের বেশী ট্যাবলেট যোগাড় করা সম্ভব হচ্ছিল না। যেখানে প্রায় সাড়ে নয় লক্ষ পড়ুয়াকে ট্যাবলেট দেওয়ার কথা। ফলে সেটা অনেক সময় সাপেক্ষ হয়ে দাঁড়াচ্ছিল। অন্যদিকে কেন্দ্রের তরফে চিনা সামগ্রীতে নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। ফলে সংশ্লিষ্ট দফতরের আধিকারিকদের সঙ্গে আলোচনা করে পড়ুয়াদের টাকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ফলে সরকারি সাহায্যের অর্থ দিয়ে পড়ুয়ারা নিজেরাই ট্যাবলেট বা স্মার্ট ফোন কিনে নিতে পারবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here