কন্যাশ্রীর টাকা না দেওয়ায় স্ত্রীকে খুন করে গ্রেফতার স্বামী

0
1030

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ স্ত্রীকে খুন করে প্রমাণ লোপাট করতে পুলিশের কাছে নিখোঁজ অভিযোগ দায়ের, এতকিছু করেও শেষরক্ষা হল না। বয়ানে অসঙ্গতি থাকায় পুলিশি জেরায় সত্যি সামনে এল। ঘটনা দক্ষিন ২৪ পরগনার জীবনতলা থানার ঘুটিয়ারীশরীফ এলাকার। মৃতার নাম রাফিজা বিবি(১৮)। জানা গেছে, ওই এলাকারই শ্রীনগর জমাদারপাড়ার বাসিন্দা ফজলুর জমাদারকে ভালোবেসে বিয়ে করেছিল রাফিজা। কিন্তু সুখ বেশীদিন স্থায়ী হল না। বিয়ের পর থেকে টাকার জন্য ক্রমাগত চাপ রাফিজার ভালোবাসার সংসারে আগুন ধরাতে বেশি সময় নেয়নি। বিয়ের পর থেকেই ফজলুর তাকে টাকার জন্য ক্রমাগত চাপ দিতে থাকে, শুধু তাই নয় টাকা আনতে অস্বীকার করলে রাফিজাকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করতেও পিছুপা হয়নি স্বামী ফজলুর। বাধ্য হয়ে রাফিজার দাদু নাতনীকে বাঁচাতে মাঝে মধ্যেই নিজের টাকা দিয়ে সাহায্য করলেও তাতেও মন ভরে নি অর্থলোভী অভিযুক্ত ফজলুরের। তার নজর যায় রাফিজার কন্যাশ্রীর টাকায়। কিন্তু রাফিজা তাকে সেই টাকা দিতে অস্বীকার করলে ফজলুর রাফিজাকে খুনের পরিকল্পনা করে। সেইমতো রাফিজার স্বামী ফজলুর রাফিজাকে নিয়ে এক নির্জন জায়গায় বাড়ি ভাড়া নেয়। সেখানে রাতের অন্ধকারে স্ত্রী রাফিজাকে সে শ্বাসরোধ করে খুন করে বলে পুলিশি জেরায় জানিয়েছে ফজলুর। তার বয়ানের ভিত্তিতে জীবনতলা থানার পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে এবং রাফিজার মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। ঘটনার সঙ্গে আরও কেউ জড়িত আছে কিনা সেবিষয়ে নিশ্চিত হতে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।