সাপের কামড়ানো নাবালিকাকে বাঁচাতে ওঝার কেরামতি, মৃত্যু নাবালিকার

0
990

নিজস্ব প্রতিনিধি, এই বাংলায়ঃ আজও সভ্য সমাজ ডুবে রয়েছে অন্ধকার জগৎতে। তাই বিংশ শতাব্দীতেও আমারা চিকিৎসাবিজ্ঞানের থেকেই আমরা বিশ্বাস করি ঝাঁড়ফুক ও ওঝা গুনিনে। যার খেসারত দিতে হয় আমাদেরকেই। যার আরও এক উদাহরণ দক্ষিণ ২৪ পরগনায়। সেখানে সাপে কামড়ানো এক নাবালিকাকে হাসপাতালে না নিয়ে গিয়ে ওঝার কাছে নিয়ে যাওয়া হল। পরিনতি যা হওয়ার তাই হল। বিনা চিকিৎসায় মৃত্যু হল নাবালিকার। ওঝার কেরামতিতে স্কুল জীবন শুরু হওয়ার আগেই থমকে গেল রিমি মণ্ডলের। জানা গেছে, বাসন্তী থানার ৭নং রানিগড় অঞ্চলের জয়গোপালপুর গ্রামের বাসিন্দা রিমি মন্ডল (১৪) বাবা বিনেন্দু মন্ডল। সোমবার রাতে খাওয়াদাওয়া সেরে পরিবারের সঙ্গে শুয়ে ছিলেন রিমি। আচমকায় তাকে বিষধর সাপে কামড়ায়। এরপর তাকে তড়িঘড়ি তাকে হাসপাতালে না নিয়ে গিয়ে নিয়ে যাওয় হয় স্থানীয় একটি ওঝার কাছে। সেখানে শুরু হয় ওঝার চিকিৎসা। স্বাভাবিকভাবেই সময় অতিবাহিত হতেই বিষ রিমির শরীরে ছড়িয়ে পড়তেই ধীরে ধীরে মৃত্যুর কোলে ঢোলে পড়ে সে। পরিস্থিতি আশঙ্কাজনক বুঝতে পেরে বহুক্ষণ পরে পরিবারের লোকেরা তাকে বাসন্তী গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখান থেকে তাকে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে মৃত্যু হয় নাবালিকার। এরপর মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্যে নিয়ে যায় ক্যানিং থানার পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here