মন্ত্রিত্ব পেলেন মানবাজার বিধানসভার বিধায়ক সন্ধ্যা রানী টুডু ও আসানসোল উত্তর বিধানসভার বিধায়ক মলয় ঘটক

0
289

জয়প্রকাশ কুইরি ,পুরুলিয়া ও সন্তোষ মণ্ডল, আসানসোলঃ- তৃতীয় বারের জন্য রাজ্যে সরকার গঠন করলো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে তৃণমূল কংগ্রেস । সোমবার রাজভবনে শপথ নিলেন ৪৩ জন ক্যাবিনেট মন্ত্রী। গতবারের বিধানসভা ভোটে পুরুলিয়া জেলাতে মন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছিলেন দুইজন। তাঁরা ছিলেন বলরামপুর বিধানসভার বিধায়ক শান্তিরাম মাহাতো ও মানবাজার বিধানসভার বিধায়িক সন্ধ্যারানী টুডু। কিন্তু এবারের একুশের বিধানসভার ফলাফলে তৃণমূলের জয়ের সংখ্যা কমে গেছে পুরুলিয়াতে। তাই এবারে মন্ত্রী সংখ্যা দুইয়ের জায়গায় কমে হয়েছে একটি। অর্থাৎ এবারে পুরুলিয়াতে মন্ত্রীপদ পেয়েছেন একজন। মানবাজার বিধানসভার বিধায়িক সন্ধ্যারানী টুডু এবার পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন পর্ষদের দায়িত্ব পেলেন। এদিন তিনি রাজভবনে গিয়ে স্বাধীন দায়িত্ব প্রাপ্ত রাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে শপথ বাক্য পাঠ করেন। তারপরই জানানো হয় যে তিনি পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন পর্ষদের দায়িত্ব পাচ্ছেন। আগে এই দপ্তরের দায়িত্ব সামলেছেন জেলার বলরামপুর বিধানসভার বিধায়ক শান্তিরাম মাহাতো। এবার তিনি বিধানসভা লড়াইয়ে জয়লাভ না করায় মানবাজার বিধানসভার বিধায়িক সন্ধ্যারানী টুডুকে ভরসা করে তাঁকেই এই দপ্তরের দায়িত্ব দিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। তিনি মন্ত্রীর দায়িত্ব পাওয়ার পর পুরুলিয়ার মানুষ খুশি।

অন্যদিকে সোমবার মন্ত্রিসভায় তৃতীয়বারের মন্ত্রী হলেন মলয় ঘটক। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে অসংখ্য ধন্যবাদ জানিয়েছে তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠন থেকে শুরু করে তৃণমূলের নেতৃত্ব। সোমবার পুনরায় মন্ত্রী মলয় ঘটক হওয়ার খুশিতে তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠনের কর্মীরা উচ্ছ্বসিত হয়ে মেতে ওঠেন আসানসোলে। একে অপরকে সবুজ আবির মাখিয়া মিষ্টিমুখ করে এবং বাজি ফাটিয়ে উচ্ছ্বসিত কর্মীরা আবেগে মেতে ওঠেন। এদিন আইএনটিটিইউসি নেতা রাজু আলুয়ালিয়ার বলেন,মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আমরা ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আবার আসানসোলে তৃতীয়বারের মতো। আসানসোলের ভূমি পুত্র তথা আসানসোল উত্তর বিধানসভার বিধায়ক এবং মন্ত্রী মলয় ঘটকের পুনরায় মন্ত্রী করার জন্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে অসংখ্য ধন্যবাদ জানান তারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here