বাঁকুড়া জেলা পরিবহন দপ্তরের উদ্যোগে খতিয়ে দেখা হলো একটি বেসরকারি স্কুলের পুলকার গুলির অবস্থা

0
359

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ- কয়েক সপ্তাহ আগে পুলকার দুর্ঘটনার কথা সকলকে নাড়িয়ে দিয়েছিল, এখনো সকলের মনে তরতাজা সেই ঘটনার আঁচ। আর তারপর থেকেই রাজ্যজুড়ে পুলকার গুলির ওপর ও স্কুলবাস গুলি ওপর কড়া নজরদারি বেড়েছে পরিবহণ দপ্তরের। আর সেমতই এদিন বাঁকুড়া জেলা পরিবহণ দফতরের উদ্যোগে বাঁকুড়ার পুয়াবাগান সংলগ্ন একটি বেসরকারি স্কুলে পুলকার গাড়ি ও স্কুলবাস গুলি খতিয়ে দেখলেন। এর পাশাপাশি যে সমস্ত পুলকার গুলি ও স্কুল বাস গুলির মধ্যে টায়ার নষ্ট হয়েছে এবং অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র নেই তাদেরকে একটি করে নোটিশ ধরিয়ে দেওয়া হলো। যেখানে বলা হয়েছে সাত দিনের মধ্যে এই সমস্যার সমাধান করতে হবে। নাহলে আগামী দিনে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নেওয়া হবে। এক বেসরকারি স্কুলের প্রিন্সিপাল বলেন, যে সমস্ত গাড়ির হয়তো সমস্ত কাগজপত্র গাড়ির কন্ডিশন ভালো নেই তার পরেও গাড়ি চালাচ্ছেন তারা সাবধান হবেন এবং যে ধরনের দুর্ঘটনা ঘটছে সেগুলো কে এড়ানো যাবে। এছাড়াও তিনি বলেন ওনারা যেমনভাবে আমাদের বলবেন আমরা সেইভাবেই ব্যবস্থা গ্রহণ করব। পরিবহণ দফতরের এক আধিকারিক বলেন, যেগুলো প্রাইভেট নাম্বারে চলছে কমার্শিয়াল করেনি অর্থাৎ কমার্শিয়াল নয় মানে তাদের পারমিট নেই। কমার্শিয়াল ভেহিকেল না হলে ১৫ বছর পর্যন্ত তাদের ফিটনেস অ্যালাও থাকে। তিনি বলেন প্রথমে আমরা সাতদিনের টাইম দিচ্ছি আমাদের যে টাস্কফোর্স তৈরি হয়েছে সেখান থেকে এটাই ডাইরেক্ট দেওয়া হয়েছে সাত দিনের জন্য তাদেরকে টাইম দেওয়া। যদি এই সময়ের মধ্যে তারা এগুলোকে ঠিক না করে তখন সেই গাড়ি ধরা পড়লে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এক পুলকার চালক বলেন, এটা মালিকদের বলা দরকার গাড়ির সামনের চাকায় নতুন টায়ার দেওয়া দরকার। সামনের টায়ার খারাপ হলে আমাদের ড্রাইভার দের পক্ষে খুবই অসুবিধা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here