বিক্ষুব্ধ নেতা কর্মী সমর্থকদের মান ভাঙাতে গোপনে গ্রাফাইট কারখানায় লোক নিয়োগের চক্রান্ত চলছে বলে অভিযোগ

0
1374

নিজস্ব সংবাদদাতা, দুর্গাপুর :- ভোট বড় বালাই, ভোটের জন্য যেখানে যেমন টোপ দিতে হয় তাই দেওয়া হচ্ছে । সাগরভাঙা এলাকায় বিক্ষুদ্ব তৃণমূল নেতা কর্মীদের হাতে রাখতেই এমনই টোপ দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ ।

স্থানীয় গ্রাফাইট কারখানাতে দুর্নীতি, স্বজনপোষণ বিরুদ্ধে যে বিশ্বনাথ পাড়িযালের বহুদিনের অভিযোগ, এতো লড়াই, মিছিল মিটিং, যাদের সঙ্গে দীর্ঘদিন মুখ দেখাদেখি বন্ধ, এখন তাদেরকে নিয়েই বৈঠক করতে বাধ্য হচ্ছেন তৃণমূল প্রার্থী । মান ভঞ্জনের পালা চলছে ।
ভোট যে বড় বালাই ……তাই হজম করতে হচ্ছে ।

সগরভাঙ্গা তৃণমূল সূত্রের খবর, এলাকার গ্রাফাইট কারখানাকে কেন্দ্র করে যত বিরোধ, এখন এই ভোটের সময় মান অভিমান মিটিয়ে ফেলার চেষ্টা চলছে । তৃণমূলের যেসমস্ত লোকাল নেতা কর্মীরা বিজেপিতে ঢোকার জন্য পা বাড়িয়ে ছিল, তাদেরকে বুঝিয়ে সুঝিয়ে দলে রাখতে সচেষ্ট তৃণমূল প্রার্থী ও তার দলবল ।

গ্রাফাইট কারখানায় চাকরি করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে কিছু নেতা মোটা মোটা টাকা নিয়ে রেখেছেন, এমন অভিযোগ দীর্ঘদিনের । গ্রাফাইট কারখানায় যাদের বিরুদ্ধে এতদিন ক্ষোভ ছিল তাদেরকে আপাতত ৭০/ ৮০ জন লোক নিয়োগ করা হবে গোপনে, এই শর্তে তাদের সঙ্গে একটা মৌখিক চুক্তি হয়েছে, তৃণমূল সূত্রে এমনই খবর ।
দু একদিনের মধ্যে সেই লোক নিয়োগ করা হবে । গোপনে সেই প্রক্রিয়া চলছে । কিন্তু এইমুহূর্তে লোক নিয়োগ হলে ছেড়ে কথা বলবে না বিজেপি ।

প্রাক্তন বোরো চেয়ারম্যান তথা ৪৩ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর, বিজেপি নেতা চন্দ্রশেখর ব্যানার্জি বলেন, গোপনে এই নিয়োগের বিষয়টি তারা জানেন । তিনি বলেন, নির্বাচনের কোড অফ কন্ডাক্ট চালু হয়ে গেছে । এখন কোনোভাবেই নতুন করে লোক ঢোকানো বেআইনি । তাসত্বেও যদি গোপনে লোক নিয়োগ হয় তাহলে ওদেরকে বুঝিয়ে দেবো ‘কত ধানে কত চাল ।’ চন্দ্রশেখরবাবু বলেন, দুর্গাপুরের সমস্ত বিজেপি কর্মী সমর্থকদের ওখানে নিয়ে গিয়ে ব্যাপক আন্দোলন গড়ে তোলা হবে । এক ইঞ্চি জমি ছাড়বো না ।

পশ্চিম বর্ধমান জেলার বিজেপি সভাপতি এবং দুর্গাপুর পশ্চিমে বিজেপি প্রার্থী লক্ষণ ঘোড়ুই বলেন, গ্রাফাইট কারখানায় লোক নিয়োগের বিষয়টির সম্পর্কে আমরা অবগত । আমরা নজর রেখেছি । তিনি বলেন, নির্বাচনী বিধি লাগু থাকাকালীন এইভাবে লোক নিয়োগ করা যায়না । এটা সম্পূর্ণ বেআইনি কাজ । লক্ষণবাবু বলেন, এর বিরুদ্ধে প্রশাসনিক দপ্তরে লিখিত অভিযোগ জানানোর পাশাপাশি আন্দোলন- প্রতিরোধ গড়ে তোলা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here