নির্বাচনের টিকিট বিক্রিতে সিবিআই তদন্তের দাবি শান্তনু ঠাকুরের বিরুদ্ধে, ভাটপাড়া পৌরসভায় অনাস্থা প্রস্তাবে অর্জুন কুপোকাৎ

0
979

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ রাজ্যে লোকসভা ভোটের প্রথম দফার ভোটের আর ২৪ ঘণ্টাও বাকি নেই। রাত পোহালেই রাজ্যে ২০১৯ লোকসভা ভোটের দামামা বেজে যাবে। কিন্তু ভোট চলে এলেও শাসক-বিরোধী রাজনৈতিক দলের মধ্যে তরজা এক বিভিন্ন এলাকার চায়ের দোকানে, পাড়ার ঠেকের অন্যতম আলোচ্য বিষয়। এবার সেই আলোচনায় নতুন মাত্রা যোগ করলো দক্ষিণ ২৪ পরগনার বনগাঁ লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী শান্তনু ঠাকুরের বিরুদ্ধে টাকার বিনিময়ে লোকসভা নির্বাচনের টিকিট বিক্রির অভিযোগ। চাঞ্চল্যকর হলেও এমনই অভিযোগ উঠেছে ওই বিজেপি প্রার্থীর বিরুদ্ধে। সম্প্রতি ঠাকুরনগর হাইস্কুলের দেওয়ালে লাল কালিতে লেখা একটি পোস্টারে কেউ বা কারা লাল কালিতে লেখে যে, বনগাঁ লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী শান্তনু ঠাকুর পশ্চিমবঙ্গে তিন কোটি মতুয়া সম্প্রদায়ের ভোট পাইয়ে দেওয়ার লোভ দেখিয়ে বিজেপির কাছ থেকে বনগাঁ, রানাঘাটা ও জয়নগর এই তিন কেন্দ্রের টিকিট আদায় করে। পোস্টারে লেখা হয়েছে, সেই তিনটি টিকিটের মধ্যে একটি বনগাঁ কেন্দ্রে নিজের নামে রেখে বাকি দুটির মধ্যে একটি রানাঘাটের প্রার্থী মুকুটমনি অধিকারিকে চার কোটি টাকায় বিক্রি করেছে শান্তনু ঠাকুর। আরও লেখা হয়েছে, লোকসভা ভোটের টিকিট পাইয়ে দেওয়ার নাম করেও বেশ কয়েকজনের কাছ থেকে কয়েক কোটি টাকা নিয়েছে বিজেপি প্রার্থী শান্তনু ঠাকুর। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে বনগাঁ এলাকায়। যদিও শান্তনু ঠাকুর তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা এহেন গুরুতর অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন। তাঁর বক্তব্য, তৃণমূল কংগ্রেস ও বনগাঁ লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী মমতা ঠাকুর তাঁর বিরুদ্ধে এই ধরণের অপপ্রচার করছে। এতে আখেরে তৃণমূলেরই ক্ষতি বলে মনে করছেন তিনি। অন্যদিকে উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়া পৌরসভার অনাস্থা প্রস্তাবের পরিপ্রেক্ষিতে অনুষ্ঠিত ভোটাভুটিকে নির্বাচন কমিশন বাতিল করে দিয়েছে বলে দাবী করে বসলেন তৃণমূল বহিস্কৃত বিজেপি নেতা ও ভাটপাড়ার চারবারের বিধায়ক অর্জুন সিংহ। এই সেই অর্জুন সিংহ, যিনি একাধিকবার বিতর্কিত কাজকর্মের জন্য খবরের শিরোনামে এসেছেন। ভাটপাড়ার বাহুবলী নেতা হিসেবে খ্যাত এই অর্জুন সিংহই তৃণমূল কংগ্রেসে থাকাকালীন প্রকাশ্য মিছিলে আগ্নেয়াস্ত্র হাতে নিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন। বর্তমানে সেই তৃণমূল নেতাই দল থেকে বহিস্কৃত হয়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। সেই অর্জুন সিংহই সম্প্রতি ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের মধ্যে বারাসাত সংলগ্ন বামনগাছি অঞ্চলে প্রচারে এসে জানান, মডেল কোড অফ কন্ডাক্ট জারি হওয়ার পরে এরকম ভোটাভুটি করা যায় না। এজন্যই নির্বাচন কমিশন ভাটপাড়া পৌরসভার সোমবারের অনাস্থা প্রস্তাবের ওপর ভোট বাতিল ঘোষণা করেছে। যদিও এখনও পর্যন্ত উত্তর ২৪ পরগনার জেলাশাসকের দপ্তর থেকে তাঁর এই মন্তব্যে কোনোরকম সীলমোহর দেওয়া হয়নি। জেলাশাসকের কার্যালয় থেকে মঙ্গলবার দুপুর পর্যন্ত অর্জুন সিংহের করা দাবী খারিজ করা হয়েছে। অন্যদিকে উত্তর চব্বিশ পরগনার জেলাশাসক অন্তরা আচার্য, ফোনে অর্জুন সিংহের দাবির বিপরীতে অবস্থান করে বললেন নির্বাচন কমিশনের এমন কোনো চিঠি তিনি পাননি।