রাষ্ট্রপতি পুরস্কারের পর ফের শিক্ষারত্ন দুর্গাপুরেরই স্কুল শিক্ষক

0
938

নিজস্ব প্রতিনিধি, দুর্গাপুরঃ- এক শিক্ষকের রাষ্ট্রপতি পুরস্কারের পর আরেক শিক্ষকের শিক্ষারত্ন সন্মান। এক মাসের ভেতর পর পর দুই শিক্ষকের শিখর সন্মানে আলো ঝলমল এখন দুর্গাপুরের শিক্ষাঙ্গঁন।
রাজ্য সরকারের শিক্ষা দপ্তর ২০২০ সালের শিক্ষারত্নের যে তালিকা তৈরী করেছে, তাতে জ্বল জ্বল করছে কাজী নিজামুদ্দিনের নাম। তিনি দুর্গাপুর শহর লাগোওয়া বিজড়া হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক। কয়েক বছর আগে অন্ডাল হাইস্কুল থেকে বিজড়া গ্রামের স্কুলের প্রধান শিক্ষকের দ্বায়িত্ব নেন নিজামুদ্দিন। তার হাতের ছোঁওয়ায় এই ক’বছরে কার্যতঃ চেহারা বদলে গিয়েছে বিজড়া স্কুলের। বিদ্যালয়ের পরিকাঠামো থেকে পঠনপাঠন, সর্বত্রই যত্নের যে ছাপ তা নজর এড়ায়নি রাজ্যের শিক্ষা-কর্তাদের। ‘শিক্ষারত্ন’ বিবেচিত হওয়ার পর খুশি স্বভাব লাজুক নিজামুদ্দিন বললেন, “খবরটা পাওয়ার পর বেশ ভালো লাগলো। তবে, স্কুলের সার্বিক উন্নয়ন আসলে একটা টিম ওয়ার্ক। আমার একার পক্ষে কি সবটা সম্ভব? সহকর্মীরা তো রয়েছেনই নিরলস চেষ্টায়, পাশে আছেন আমাদের ছাত্র ছাত্রীদের অভিভাবকরাও।”
২০১৯ সালে রাজ্য সরকারের শিক্ষারত্ন সন্মানে ভূষিত হয়েছিলেন দুর্গাপুরেরই নেপালী পাড়া হিন্দি হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক ডাঃ কলিমুল হক। চলতি বছরে তিনিই আবার রাষ্ট্রপতি পুরস্কারের জন্য জন্য বিবেচিত হয়েছেন। নিজামুদ্দিনের শিক্ষারত্ন সন্মাননা প্রসঙ্গেঁ ডঃ হক বলেছেন, “খুবই খুশির খবর। নিজাম স্যার যেভাবে স্কুল টাকে গড়ে তুলেছেন তা সত্যিই অতুলনীয়। উনি শিক্ষক সমাজের কাছে একজন দৃষ্টান্ত।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here