দোকানের কর্মীকে চড় মালিকের,দোকানেই মৃত্যু কর্মীর, পথঅবরোধ ও বিক্ষোভ, ঘটনাস্থলে পুলিশ

0
166

সংবাদদাতা, পশ্চিম মেদিনীপুরঃ- দোকানের কর্মীকে চড় মারেন মালিক আর তার জেরেই দোকানেই মৃত্যু হয় কর্মীর। এমনই এক মর্মান্তিক ঘটনার সাক্ষী রইল পশ্চিম মেদিনীপুরের কেশপুরের গোলাড় গ্রাম।

সূত্র থেকে জানা যায় স্থানীয় শেখ শাহজাহান আলী নামক এক ব্যক্তির কাপড় ও হার্ডওয়ারের দোকানে দীর্ঘ তিন বছর কাজ করতেন তারাপদ দোলুই (৪০) নামে এক ব্যক্তি। তিনি স্থানীয় গোলাড় গ্রামের বাসিন্দা । মঙ্গলবার সকালে কাজের বকেয়া টাকা চাইতে গেলে হঠাৎ মালিক-কর্মচারীর সাথে বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েন। প্রথমে মালিক ও কর্মচারীর মধ্যে বৎচসা হয়, এরপর শুরু হয় হাতাহাতি। তখনই হঠাৎ শেখ শাহজাহান আলী কোন ভারী বস্তু দিয়ে আঘাত করেন তারাপদের মাথায়। ঘটনাস্থলে লুটিয়ে পড়েন তারাপদ। স্থানীয় বাসিন্দারা তাকে দ্রুত তুলে ডাক্তারের কাছে নিয়ে গেলে তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানায় চিকিৎসক। এই ঘটনার খবর জানাজানি হতেই মৃত পরিবারের লোকজন ও গ্রামবাসীরা মৃতদেহ ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। স্থানীয় বাজার ও মূল রাস্তা অবরোধ করে বসেন গ্রামবাসীরা । গ্রামবাসীদের দাবি অবিলম্বে দোষী ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করতে হবে না হলে তারা মৃতদেহ নিয়ে পুলিশকে যেতে দেবেন না। স্থানীয় রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে বিষয়টি মীমাংসা করার জন্য মৃত ব্যক্তির পরিবারকে ১০ লক্ষ টাকা ও যে দোকানে কাজ করতেন তারাপদ দোলুই সেই দোকানটি লিখে দেওয়ার দাবি জানানো হয়। কিন্তু দোকানের মালিক শেখ শাহজাহান আলীর পরিবার তা মানতে রাজি হয়নি। তাদের বক্তব্য মৃত ব্যক্তির পরিবারকে দু’লক্ষ টাকা ও তিন ডেসিমেল জায়গা লিখে দেবেন তার পরিবার। সেই শর্ত মেনে নেয়নি মৃতের পরিজনেরা। লিখিত অভিযোগ দায়ের করে আইনি পথেই হাঁটেন মৃতের পরিবার পরিজনরা। ইতিমধ্যেই অভিযুক্ত শেখ শাহজাহান আলীকে গ্রেফতার করেছে কেশপুর থানার পুলিশ। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে যথেষ্ট উত্তেজনা রয়েছে গোটা কেশপুর ও গোলাড় গ্রাম সংলগ্ন আশেপাশের গ্রামগুলিতে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here