দুর্গা সপ্তমীতে নবপত্রিকার স্নানেও লাগে নয় রকমের জল!

0
11

সঙ্গীতা চ্যাটার্জী (চৌধুরী),বহরমপুরঃ- আজ ২ রা অক্টোবর ২০২২, মহাসপ্তমী। আজকের দিনে মন্ডপে মন্ডপে নবপত্রিকা স্নানের রীতি আছে। কিন্তু নবপত্রিকা সম্পর্কে অনেক ভুল ধারণাও রয়েছে। আসলে অজ্ঞতাবশত আমরা অনেকেই নবপত্রিকাকে কলা বউ হিসেবে ভুল করি, আরো একটি ভুল ধারণা আছে তা হলো কলা বৌ নাকি গণেশের বৌ। আসলে দুর্গা পূজার দিন মণ্ডপে দেবী দুর্গার প্রতিভূ হিসেবে রাখা হয় ৯ ধরনের গাছকে আর এদেরকেই নবপত্রিকা বলা হয়। এই নয় ধরণের গাছকে (কলা, হলুদ, কচু, জয়ন্তী ,বেল, ডালিম, অশোক মান ও ধান) আবার নয় রকমের জলে স্নান করিয়ে নতুন বস্ত্র পরিয়ে স্থাপন করা হয় গণেশের পাশে।

নয়টি গাছকে যে নয় রকমের জলে স্নান করানো হয় সেগুলো কী কী জানেন? (অর্থাৎ গঙ্গাজল,বৃষ্টির জল,সরস্বতী নদীর জল, সাগরের জল, পদ্মরজোমিশ্রিত জল,ঝর্ণার জল,সর্বতীর্থের জল,শুদ্ধ জল,ইক্ষুরস‌ উদক) কলা গাছে অধিষ্টান করেন দেবী ব্রহ্মাণী। কচু গাছে অধিষ্টান করেন দেবী কালিকা। হরিদ্রা গাছের অধিষ্টাত্রী দেবী হলেন উমা আর জয়ন্তী গাছ হলো দেবী কার্তীকীর প্রতিভূ অন্যদিকে বিল্ব গাছের অধিষ্টানকারী দেবী হলেন শিবা আর দাড়িম্ব গাছের অধিষ্টাত্রী দেবী হলেন রক্তদন্তিকা। অশোক গাছের অধিষ্টাত্রী দেবী হলেন শোকরহিতা আর মান গাছের অধিষ্টানকারী দেবী হলেন চামুণ্ডা। ধান গাছের অধিষ্টানকারী দেবী হলেন লক্ষ্মী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here