সরষে চাষে অনাগ্রহ

0
1063

নিজস্ব প্রতিনিধি, বাঁকুড়াঃ ইদানিং সরষে চাষের আগ্রহ কমছে চাষিদের মধ্যে। খাঁটি সরষের তেলে ইলিশ ভাজা, কিংবা বাঙালির যে কোন রান্না হোক সবেতেই সরষের তেলের ঝাঁঝালো গন্ধ খাবারের স্বাদের এক অন্যতম রহস্য । কিন্তু খাদ্যরসিক বাঙালীর সেই স্বাদ ধীরে ধীরে ফিকে হতে বসেছে। কারন হিসেবে অবশ্য জানা যাচ্ছে শীতকালীন সরষে চাষের আগ্রহ কমছে চাষিদের মধ্যে। একটা সময়ে শীতকাল এলেই মাঠ ভরে থাকত সরষে ফুলে। যে দিকেই চোখ যেত সেদিকই হলুদ হয়ে থাকত। কিন্তু বর্তমানে আর সেই ছবি দেখা যায় না। বাঁকুড়া জেলার সোনামুখী থানার রাধামোহনপুর অঞ্চলকে একসময় ‘সরষের গোলা’ বলা হত। যদিও এই অঞ্চলে আর আগের মত সরষে চাষ চোখে পড়ে না। অবশ্য বর্তমানে শুধুমাত্র রাধামোহনপুর অঞ্চলেই নয় প্রায় সমগ্র রাজ্যজুড়ে কম বেশি এই একই ছবি দেখা যাচ্ছে। কেন এই অনাগ্রহ জানতে চাইলে বেশিরভাগ চাষিদেরই একই উত্তর, সরষে চাষে তেমন লাভ নেই, শীতকালীন অর্থকরী ফসল যেমন আলু, শসা, কড়াইশুঁটির মত চাষে লাভের পরিমান অনেক বেশি। এলাকার এক চাষি শান্তি সরকার জানান, এক বিঘা সরষে চাষ করতে দুই থেকে আড়াই হাজার টাকা খরচ হয়। কিন্তু চাষের শেষে ফসল বিক্রি করে সেই টাকাটাও ঘরে আসে না। তাই বর্তমানে সরষে চাষের প্রতি আগ্রহটাও কমে যাচ্ছে। বিশেষজ্ঞদের অবশ্য দাবি, বাজারে নিত্য নতুন রিফাইন তেল আসায় চাহিদা কমেছে খাঁটি সরষের তেলের চাহিদা। ফলে চাষিরা সরষের সঠিক দাম না পাওয়াতেই চাষ কমাতে বাধ্য হচ্ছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here