বলিউডের বিখ্যাত অভিনেতা-পরিচালক ও মা সারদার অদ্ভুদ সাক্ষাৎকার

0
572

সংগীতা চ্যাটার্জী (চৌধুরী),বহরমপুরঃ- সারদা মা ছিলেন জগৎজননী। ঠাকুর রামকৃষ্ণ পরমহংসদেবের যথার্থ সহধর্মিনী তিনি। তাঁর মাতৃত্ব বিশ্ববন্দিত। আজ ১৯১৮ খ্রীস্টাব্দের একটি ঘটনার কথা আপনাদের বলবো, যা শুনলে আপনারা বুঝবেন মা কত বড় শক্তির আধার ছিলেন।

জয়রামবাটী থেকে ম্যালেরিয়ায় ভুগে শরীর সারাবার জন্য শ্রীমা সেইবার কলকাতায় এসেছিলেন। সেই সময় মায়ের বাড়িতে উপস্থিত হলেন একজন পারসী যুবক। শ্রীশ্রীমায়ের সাক্ষাৎলাভে ধন্য হয়ে তিনি বললেন, “মাঈজী, কুছ মূলমন্ত্র দীজিয়ে জিসসে খুদা পহচানা জায়।” তখন ভক্তদের দর্শন বন্ধ, তবু মা দুর্বল শরীর নিয়ে যুবকটিকে দীক্ষা দিলেন। তাঁর কাছ থেকে বিদায় নেওয়ার সময় যুবকটি হিন্দী ভাষায় বললেন, “মাঈজী, ম্যায় যা রহা হুঁ।” মা বাঙলায় বললেন, “যাই বলতে নেই বাবা, বলো আসি।” একজন সেবক মায়ের কথাগুলি যুবকটিকে অনুবাদ করে শোনালেন, Mother says, don’t say “I am going”, say , “I am coming”. যুবকটি শুনে অবাক হলেন। ভাবলেন, আমি তো যাচ্ছি। মা কেন বলছেন, “আসছি” বলতে। এই পারসী যুবক পরবর্তীকালের বিখ্যাত চিত্রাভিনেতা ও চিত্র-পরিচালক সোরাব মোদী। শেষ জীবনে অসুস্থ অবস্থায় স্বামী নিরাময়ানন্দজীকে তিনি বলেছিলেন, “এখন আমি বুঝতে পারছি – যা তখন আমার কাছে দুর্বোধ্য মনে হয়েছিল – আমি তাঁর কাছ থেকে “চলে যেতে” চেয়েছিলাম, কিন্তু শেষ পর্যন্ত “যেতে” আমি পারিনি। আমরা কেউই পারিনি। মায়ের কাছে আমাদের ফিরে আসতে হবেই। আমার জীবনের অন্তিম উপলব্ধি – আমি মায়ের কাছে ফিরে আসছি -“ I am coming to my Mother”

হ্যাঁ জীবনের শেষ সময়ে আমরা সবাই মায়ের কাছেই ফিরে যাবো। তিনি আমাদের একমাত্র আশ্রয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here