মজার ছলেও মিথ্যে কথা বলা পছন্দ করতেন না ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণ পরমহংসদেব, একটি ঘটনায় তার প্রমাণ মেলে

0
230

সংগীতা চৌধুরী, বহরমপুরঃ- ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণ পরমহংসদেব ছিলেন মজার লোক। তিনি অনেক সময় মজা করতেন কিন্তু মজার ছলেও তিনি কখন‌ই অসত‍্যকে প্রশ্রয় দিতেন না। এই বিষয়টার স্পষ্ট উল্লেখ পাওয়া যায় একদিনের ঘটনায় সেই ঘটনার‌ই উল্লেখ করবো আজকে।

ঠাকুর একদিন যদু মল্লিককে বলেছিলেন,” কিগো যদু। এত টাকা করেছ, এখনও টাকার লোভ গেল না।” এর উত্তরে যদুবাবু বলেছিলেন, ” দেখ, ছোট ভটচায। ও লোভ যাবার নয়। তুমি যেমন ভগবানের লোভ ছাড়তে পার না, বিষয়ী লোক তেমনি টাকার লোভ ছাড়তে পারে না। তুমি ভগবানের প্রেমের জন্য পাগল হতে পার, কিন্তু,আমি তাঁর ঐশ্বর্যের জন্য পাগল হয়েছি। তুমি সব ছেড়ে তাঁকে চাইছ আর আমি তাঁর ঐশ্বর্যের কাঙাল হয়ে টাকা টাকা করছি। আচ্ছা, বল দিকিনি, টাকা কি তাঁর ঐশ্বর্য নয়? ” একথা শুনে ঠাকুর ভারি খুশি হয়েছিলেন। ঠাকুর বললেন-“এটা যদি বুঝে থাকো, তাহলে আর তোমার ভাবনা কিসের?” তারপর আবার জিজ্ঞাসা করলেন,” কিগো যদু। সরল ভাবে একথা বলছ, নাকি চালাকি করে বলছ?” একথা শুনে যদুবাবু বলেছিলেন,” সেতো তুমি জান,ছোট ভটচায। তোমার কাছে মনের কথা লুকাতে পারবো না।”

মজার ছলেও মিথ্যে কথা বলা ঠাকুরের অপছন্দের ছিলো। আসলে তিনি যে সত্যের পূজারী ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here