কলকাতার পথ খাবার নিয়ে নতুন করে সমীক্ষার উদ্যোগ

0
621

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলকাতাঃ মহানগরীর অফিস পাড়া, ডালহোওসী স্কোয়ারই হোক বা চোরঙ্গী স্কোয়ার, জিভে জল আনা হরেক রকম স্ট্রীট ফুড বা ‘পথ খাবার’ প্রিয় আট থেকে আশি- সব্বার। ঝালমুড়ি, চাউমিন, মোগলাই, হরেকরকমের মিষ্টি, চাই কি হাতে গরম রুটি- মাংস, ডালভাত, চিকেন বা মটন রোল, কলকাতার পথ খাবার যেমন সুস্বাদু, তেমনি দরকারী, যুগ যুগ ধরে।
খাবার খেয়ে, পয়সা মিটিয়ে যে যার দৌড়ে ব্যস্ত। কে আর খোজঁ রাখে পথ খাবারের যোগানদারদের? আর কেউ না রাখুক-এদের খোঁজ নিতে এবার তৎপর কলকাতা পুরসভা। আদতে কত হকার বিক্রী করছেন স্ট্রীট ফুড, সেই সব খাবার আবার আদো স্বাস্থ্য সম্মত কি- না, এ সবের হাল হকিকৎ জানতে ব্যবস্থা নিচ্ছে কলকাতা পুরসভা। পুরসভার ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষ জানান,”আমরা পথ খাবার নিয়ে নতুন করে সমীক্ষা শুরু করছি শিঘ্রই। শহরের সব স্ট্রীট ফুড বিক্রেতাকে খাবারের গুনমান বজায় রাখার প্রশিক্ষনের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এই কাজে কলকাতা শহরের কয়েকটি পুরওয়ার্ড কয়েকটি অঞ্চলে ভাগ করে হকারদের প্রশিক্ষন দেওয়া হবে। ব্যুরো অফ ইন্ডিয়ান স্ট্যান্ডাড, বিভিন্ন স্বেছাসেবী সংস্থা, খাদ্য দপ্তরের আধিকারিকরা এ কাজে পুরওয়ার্ড সাহায্য করবে।” তিন বছর আগে, ২০১৬ তে পথ খাবার নিয়ে একটি সমীক্ষা চালানো হয়। তাতে জানা যায়, কলকাতা জুড়ে ১৬৫০০ ছোট, বড় পথ খাবার বিক্রেতা রয়েছেন। তবে, তার অধিকাংশই ফুড লাইসেন্সের ধার ধারেন না। অতীন বলেন,”আগের তুলনায় কলকাতার পথখাবারের মান অনেক উন্নত হয়েছে।”সংশ্লিষ্ট বিষয়টি নিয়ে গত তিনদিন থাইল্যান্ডের ব্যাংককে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার আয়োজনে রাস্তার ধারে বিক্রি হওয়া খাবারের গুনমান নিয়ে একটি আন্তরজাতিক সন্মেলন হয়। তাতে অংশ নেয় কলকাতা পুরসভাও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here