মুখ্যমন্ত্রী সফরের জন্য বাঁকুড়া জেলা প্রদর্শন করলেন শুভেন্দু অধিকারী

0
572

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ- আগামী ১০, ১১, ও ১২ ই ফেব্রুয়ারি তিনদিনের মুখ্যমন্ত্রী সফর। আর তার আগেই বাঁকুড়ার পর্যবেক্ষক শুভেন্দু অধিকারী ঘুরে গেলেন বাঁকুড়া জেলায়। প্রথমে তিনি বাঁকুড়া সতীঘাট এলাকার মুখ্যমন্ত্রীর কর্মী সম্মেলনে সভাস্থল ঘুরে দেখেন। তারপর তিনি বাঁকুড়ার রবীন্দ্রভবনে রাজনৈতিক কর্মশালায় কর্মীদের সঙ্গে আলোচনায় বসেন। সেখান থেকে তিনি যান বাঁকুড়ার সার্কিট হাউসে। সেখানোও একপ্রস্থ আলোচনা সেরে ফেলেন প্রশাসনিক স্তরে। মুখ্যমন্ত্রীর সফরকে ঘিরে চলে বিভিন্ন আলোচনা। আজ শুভেন্দু অধিকারীর আগে থেকেই জেলা সফরে আসার কথা ছিল। সেই কর্মসূচি বাদ দিয়ে আজ মুখ্যমন্ত্রীর কর্মী সম্মেলনের কর্মসূচিতেই গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে বলে দাবি করেছেন শুভেন্দু অধিকারী। তার দাবি কর্মী সম্মেলন হবে। লক্ষ রাখতে হবে যেন সব বুথ থেকে কর্মী অশগ্রহণ করে। প্রায় ৫০ হাজার কর্মী সম্মেলনে অংশগ্রহণ করবে। বাঁকুড়া জেলার তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে ৪০ হাজার এবং অন্যান্য শাখা সংগঠনের পক্ষ থেকে ১০ হাজার কর্মী সম্মেলনে অংশগ্রহণ করবে। ২০১১ সালে সতীঘাট ময়দানের রাজনৈতিক সভা দিয়েই শুরু হয়েছিল কর্মসূচি। আবার কর্মীসভা মধ্য দিয়ে আগামী দিনে বাঁকুড়া জেলায় পথ চলা শুরু হবে। লোকসভা নির্বাচনের যেটুকু আমরা পিছিয়ে গিয়েছিলাম। আমাদের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আমাদের যা যা সংশোধন করার হওয়া দরকার ছিল আমরা তা করেছি। আমরা সাংগঠনিক ত্রুটি কাটিয়ে উঠে একটি ভাল সংগঠনের জায়গায় যেতে পেরেছি। আমরা আমাদের নেত্রী সম্মেলন যা যা মেসেজ পাবো তাতে আগামী দিনে রাজনৈতিক উন্নয়ন পৌরসভা বলুন আর বিধানসভায় বলুন সবক্ষেত্রেই তৃণমূল বাঁকুড়া জেলার পুরনো ঐতিহ্য বা দূর্গ ফিরিয়ে আনতে পারবে বলে দাবি করেন। কলকাতা টালা ব্রীজ সংস্কার প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন প্রচার মাধ্যম যেভাবে প্রচার করেছিল সেরকম কোনো ঘটনা ঘটনা ঘটেনি। আমাদেরও একটা আশঙ্কা ছিল। তবে আমি খবর নিয়ে দেখেছি কোনরকম যানজাট আজ কে হয়নি। জলপথ আজ সক্রিয় ছিল। অন্যান্য রাস্তা ব্যবহার করেছে। কয়েক হাজার মানুষ জলপথ ব্যবহার করেছে। আমি খবর নিয়ে জেনেছি কোনরকম সমস্যা মানুষের হয়নি বলে দাবি করেছেন জনপথ পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here