রবিবাসরীয় ভোট প্রচারে সুব্রত, মুনমুন, সুজাতা,

0
816

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ ৩৪ বছরে বাঁকুড়া জেলায় পানীয় জল সমস্যার সমাধান করতে পারে নি বাম সরকার। বাঁকুড়ার সিমলাপাল ব্লকে ভোট প্রচার ও কর্মীসভায় যোগ দিয়ে পানীয় জল ইস্যুকেই হাতিয়ার করলেন বাঁকুড়া লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী সুব্রত মুখোপাধ্যায়। তাঁর বক্তব্য, তৃণমূল সরকার ক্ষমতায় আসার পর বাঁকুড়ার মানুষের পানীয় জলের সমস্যার সমাধান হয়েছে। তৃণমূল প্রার্থী সুব্রত মুখোপাধ্যায় জানান, ২০০৯ সালে হারার পর অনেকেই ভেবেছিলেন তিনি আর বাঁকুড়ামুখী হবেন না, কিন্তু তাদের ভুল ফের তিনি বাঁকুড়ায় ফিরে এসেছেন কারণ বাঁকুড়ার সঙ্গে তিনি ওতোপ্রতোভাবে জড়িত। বাম সরকারের বিরুদ্ধে তাঁর বক্তব্য, গত কয়েক বছরে যদি তৃণমূল সরকার তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যদি বাঁকুড়ার জল সমস্যা দূর করতে পারেন তাহলে ৩৪ বছর ধরে সিপিএম কী করছিল। একদিকে বাঁকুড়ার সিমলাপালে যখন বিগত বাম সরকারের বিরোধিতায় সরব হয়েছেন তৃণমূল প্রার্থী সুব্রত মুখোপাধ্যায় তখন বিষ্ণুপুর লোকসভার অন্তর্গত নিকুঞ্জপুর অঞ্চলে স্বামীর হয়ে প্রচারের ময়দানে নেমে পড়েছেন বিষ্ণুপুরের বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্র খাঁ-র স্ত্রী স্কুল শিক্ষিকা সুজাতা খাঁ। সক্রিয় ভাবে রাজনীতিতে না থাকলেও হাইকোর্টের নির্দেশে সৌমিত্র খা-র বিষ্ণুপুরে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা থাকায় স্বামীর জায়গা পূরণ করতে বিজেপি দলীয় কর্মী সমর্থকদের নিয়ে প্রচারে নেমেছেন স্ত্রী সুজাতা খাঁ। সুজাতা খাঁ জানান, কোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী বিষ্ণুপুরে সশরীরে হাজির হতে পারছেন না সৌমিত্র খাঁ। কিন্তু তাসত্ত্বেও কোনভাবেই দলীয় কর্মী সমর্থকরা তার অভাব বুঝতে দেননি। এদিন বাড়ি বাড়ি গিয়ে বিজেপি কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে প্রচার সারেন সুজাতা খাঁ। এরই মধ্যে শেষপর্যন্ত দেরীতে হলেও পুরুলিয়া লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থীর নাম ঘোষণা হল। শনিবার বিকেলে বিজেপির পক্ষ থেকে প্রার্থী হিসেবে নাম ঘোষণা করা হয় জ্যোতির্ময় সিং মাহাতোর। প্রথম থেকেই পুরুলিয়ার এই আসনে মাহাতো ফ্যাক্টর কাজ করছিল। সেইমতো জ্যোতির্ময় সিং মাহাতোকে প্রার্থী করল বিজেপি| পুরুলিয়ায় প্রার্থী ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে রাজ্যে ৪১টি লোকসভা কেন্দ্রে প্রার্থী ঘোষণা হয়ে গেল বিজেপির| বাকি রইল একটি লোকসভা আসন। ওই আসন কবে পূরণ হয় আপাতত সেইদিকেই তাকিয়ে রাজ্য। আসন্ন লোকসভা ভোটকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত রাজ্য রাজনীতি। শাসক-বিরোধী সমস্ত দলের প্রার্থীরাই পুরোদমে হাজির প্রচারের ময়দানে। ভোটযুদ্ধকে কেন্দ্র করেই শুরু হয়ে গিয়েছে বাকযুদ্ধ। রবিবার লাউদোহার নতুন ডাঙ্গা হাটতলা ও গৌর বাজারে লোকসভা ভোটে আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী হিসেবে ভোট প্রচার করলেন তারকা প্রার্থী মুনমুন সেন। নতুনডাঙ্গায় মুনমুনের জনসভা উপলক্ষ্যে তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের পাশাপাশি ভিড় জমান এলাকার মানুষজনও । প্রার্থী জানান, বাঁকুড়ায় সাংসদ থাকাকালীন এলাকার উন্নয়নে কাজ করেছি, আসানসোলেও কাজ করতে চাই। পরের সভাটি হয় গৌরবাজারে।