বীরভূমের শিশুর চিকিৎসার দায় নিলেন ফিরহাদঃ টক টু মেয়র

0
451

বিশেষ প্রতিনিধি, কলকাতাঃ ফের কাজে এল ‘টক টু মেয়র’- কলকাতা পুরসভার বিশেষ টেলি – উদ্যোগ। ফল মিলল হাতেনাতে। সদ্যোজাত এক অসুস্থ শিশুর চিকিৎসার সমস্ত ভার নিজের কাঁধে তুলে নিলেন পুরসভার মেয়র ফিরহাদ হাকিম। বীরভূম জেলার বাসিন্দা অর্পিতা ঘটকের সদ্যোজাত সন্তান চিকিৎসা পাচ্ছিল না, কলকাতা মহানগরের একের পর এক হাসপাতালে। শিশুটির শারিরিক অবস্থা দেখে কার্যতঃ ফিরিয়েই দিচ্ছিল একের পর এক হাসপাতাল। শেষে, আর.এন. টেগোর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ শিশুটিকে ভর্তি নিলেও, টানা সাতদিন ভেন্টিলেশনে থাকা শিশুটির বিষয়ে নাকি পরিবারকে বিস্তারিত কিছুই জানাচ্ছিল না। চিকিৎসার বিলও বাড়ছিল লাফিয়ে লাফিয়ে। তার অসহায়তায় সাড়া মিলছিল না কোনো দিক থেকেই। তখনি অর্পিতার মাথায় আসে ‘টক টু মেয়র’। সরাসরি ফোনে নিজের, সন্তানের করুন অবস্থার বিবরন জানালেন মেয়রকে। সবশুনে মেয়রও লেগে পড়লেন কাজে। তৎক্ষনাৎ অর্পিতার ফোন রেখেই সরাসরি যোগাযোগ করলেন হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্তা-ব্যাক্তিদের সাথে। খোঁজ নিলেন শিশুটির শারিরিক অবস্থার। হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্তা কেশব মুখারজীকে ফোনেই নির্দেশ দিলেন, – শিশুটির চিকিৎসার যাবতীয় খরচ মেয়রের পক্ষ থেকে বহন করা হবে। তার পরিবারের কাছ থেকে যেন কোনো টাকা পয়সা না নেওয়া হয়। মেয়র ফিরহাদ হাকিম জানালেন, “তাদের কাজ করার জন্য মানুষই তো আমাদেরকে এখানে বসিয়েছে। সেটাই করতে হবে। যতটা সম্ভব আমরা তা করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।” ‘টক টু মেয়র’ এ ফিরহাদ রোজ অন্ততঃ ২৫ টি ফোন নিজে ধরেন। কথা বলেন মানুষের সাথে। তাদের সমস্যা নিয়ে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here