ভুল পরিকল্পনার কারণে ই সি এলের উচ্ছেদ অভিযান ব্যাহত

0
560

নিজস্ব সংবাদদাতা, অন্ডালঃ-

ই সি এল এর আবেদনে ২০১৭ সালে মহামান্য সবোর্চ্চ আদালত নির্দেশ দেন বেআইনি ভাবে যারা ই সি এল এর আবাসন দখল করে আছেন তাদের সেই ঘর ছাড়তে হবে। অন্যথা ই সি এল কর্তিপক্ষ সেই দখলদারীদের থেকে ঘর দখল মুক্ত করবে ।
কিন্তু নিয়ম অনুযায়ী দীর্ঘদিন দখল করে থাকা দখলদারদের ঘর ছাড়ার জন্য নির্দিষ্ট সময় দেবার কথা । মঙ্গলবার এরকমই একটা অভিযান চালালো ই সি এলের বাংকলা এরিয়ার আধিকারিকরা । সেই আধিকারিকদের নেতৃত্বে ছিলেন পি এম আই সি দিব্যেন্দু ঘোষ। ই সি এল আবাসন দখল মুক্ত করতে ছিল বিশাল পুলিশ বাহিনী, কম্বাট ফোর্স, ছিলেন অন্ডাল থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক পার্থ ঘোষ, উখরা ফাঁড়ির আই সি লক্ষ্মীকান্ত দে ও এ সি পি আরিস বিলাল সাহেব । পুলিশ বাহিনীর সাথে ছিল বিশাল সি আই এফ বাহিনীও ।
কিন্তু বাধ সাধলো ই সি এল
আধিকারি কের একটু ভুল তিনি এলাকায় ঘর দখল মুক্ত করার জন্য কোনো নোটিশ জারি না করেই বিশাল বাহিনী নিয়ে ই সি এল আবাসন দখল মুক্ত করতে এসেছিলেন । প্রসেনজিৎ বাগদি নামে এক ব্যক্তিকে দখল করে থাকা একটা ঘর থেকে বের করতেই সমস্যায় পড়লেন ই সি এল আধিকারিকরা । দখলদার দের হতে সাওয়াল করলেন তৃণমূল নেতা কেশব ব্যানার্জি, কেশব বাবু পুলিশ ও ই সি এল আধিকারিকদের বলেন মহামান্য সবোর্চ্চ আদালতের নির্দেশ কে মেনে নিয়ে তিনি বলেন অবশ্যই বেআইনি ভাবে যারা ই সি এল এর ঘর দখল করে আছেন ,তাদের ঘর ছাড়তেই হবে।

তবে মানবিকতার খাতিরে তাদের কোনও রকম সময় না দিয়ে ঘর থেকে বের করে দিলে হঠাৎ করে তারা পরিবার নিয়ে কোথায় যাবেন । কেশব বাবুর কথার কোনও উত্তর দিতে পারলেন না ই সি এল আধিকারিকরা। সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েও লজ্জায় মুখ ঢাকলেন ই সি এল আধিকারিক দিব্যেন্দু ঘোষ। সব প্রশ্নের উত্তরে তিনি শুধুই নো কমেন্টস বলেই এড়িয়ে গেলেন ।
শেষমেষ আজকের বাংকলা এরিয়ার ইসিএলের বেআইনি ঘর দখল উচ্ছেদ অভিযান একেবারে মাঠে মারা গেল । শেষমেষ দখলদারদের একমাসের সময়সীমা দিয়ে ব্যর্থ হলে ফিরতে হল ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here